সুবর্ণচরে ধর্ষিতের আত্মহত্যা নিয়ে হাই কোর্টে আবেদন

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
নোয়াখালীর সুবর্ণচরের চর মাকসুমুল গ্রামে ধর্ষিত হওয়ার পর গৃহবধূ পলি আক্তারের আত্মহত্যার ঘটনা হাই কোর্টের নজরে এনে রিট আবেদন হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মুনতাসীর মাহমুদ রহমান পত্রিকায় প্রকাশিত এ সংক্রান্ত সংবাদ যুক্ত করে গতকাল সোমবার হাই কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট আবেদনটি করেন।
ধর্ষণ ও আত্মহত্যার ওই ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যাবস্থা নিতে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা ও ব্যর্থতা কেন অবৈধ হবে না এবং ধর্ষণের মতো জঘন্য অপরাধ মীমাংসার নামে তথাকথিত সালিশি বৈঠক কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, এই রুল চেয়েছেন তিনি।
মুনতাসীর রহমান বলেন, চলতি সপ্তাহেই বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাই কোর্ট বেঞ্চে আবেদনটির শুনানি হতে পারে। শনিবার সকালে মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চর মাকসুমুল গ্রামে পলি আক্তার (২২) বিষপানে আত্মহত্যা করেন বলে তার শ্বশুর নূর করিম জানান। তার আগের রাতেই বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে একই এলাকার আলাউদ্দিন ঘরে ঢুকে পলিকে ধর্ষণ করে বলে শ্বশুর জানান।
তিনি বলেন, পলির চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন আলাউদ্দিনকে আটকের পর রাতেই সালিশ বৈঠকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। অপমান সইতে না পেরে পলি বিষপান করে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.