শিরোমণি চক্ষু হাসপাতালের ডাক্তার-ষ্টাফদের অবস্থান ধর্মঘট, আজ আবারও কর্মসূচি

একই দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

 

দ: প্রতিবেদক

খুলনার শিরোমণি বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের এ্যাডমিনিস্ট্রেটর মাহামুদুল হাসান তারিফ ফেন্সিডিলসহ আটকের ঘটনায় ও নারী কেলেঙ্কারীসহ বিভিন্ন দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হওয়ায় তাকে চাকুরীচ্যুত এবং দুর্নীতিবাজদের পৃষ্ঠপোষক হাসপাতালের পরিচালকের অপসারণের দাবিতে গতকাল বুধবার পরিচালকের কক্ষের সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন প্রতিষ্ঠানের ডাক্তার-ষ্টাফরা। একই দাবিতে সকাল সাড়ে ৯টায় হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনে সর্বস্তরের এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

দুই দফার দাবিতে গতকাল বুধবার সকাল ৮টায় হাসপাতালের ডাক্তার-কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা পরিচালক ডাঃ আঃ হান্নানের অফিস কক্ষের সামনে সারিবদ্ধভাবে অবস্থান নিয়ে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন।

এ সময় বক্তৃতা করেন ডাঃ সাইফুর রহমান, ডাঃ নজরুল ইসলাম, কর্মকর্তাদের মধ্যে মীর মিজানুর রহমান, আফরোজা ইয়াসমিন, কর্মচারীদের মধ্যে গিয়াস জমাদ্দার, মোঃ খায়রুল ইসলাম।

আন্দোলনকারীদের নেতা ডাঃ সাইফুর রহমান জানান, দাবি আদায়ের বিষয়ে চেয়ারম্যান মহোদর্য়ে আশ্বাসে কর্মসূচি সাময়িকভাবে প্রত্যাহার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার মধ্যে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অফিস অর্ডার দেখাতে না পারলে সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ৮টা পর্যন্ত অবস্থান ধর্মঘট, বেলা ১২টা থেকে সাড়ে ১২ পর্যন্ত কর্মবিরতি এবং বেলা ২টা থেকে পরিচালকের কক্ষে তালা দিয়ে অবরুদ্ধকরণ কর্মসূচি পালন করা হবে।

অপরদিকে একই দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে এলাকাবাসী। সর্বস্তরের এলাকাবাসীর ব্যানারে গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯ প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করে। মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন, খানজাহান আলী থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও মহানগর আ’লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা স.ম রেজওয়ান আলী, জাতীয় শ্রমিকলীগ উত্তরের সভাপতি শ্রমিক নেতা আলহাজ্জ শেখ আনছার আলী, মহানগর সড়ক ও পরিবহন শ্রমিকলীগের সভাপতি মনিরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি কাজী আবুল হোসেন রানা, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াজ হোসেন, সাংগঠনিক মনিরুল ইসলাম, বিদ্যুৎ কুমার মজুমদার, খানজাহান আলী থানার সভাপতি  মনিরুল ইসলাম মনি, সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন, আলতাফ হোসেন, হাসান, আশরাফ হোসেন, নাসির খান, খোকন মুন্সি, লুৎফর রহমান, আবুল কালাম আজাদ, ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন নেতা নুরুল ইসলাম নুরুসহ স্থানীয় বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিবর্গ। মানববন্ধনে বক্তারা বাদী আদায়ে আট চল্লিশ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে বলে এই সময়ের মধ্যে দাবি পূরণ করা না হলে প্রতিষ্ঠানের সামনে সর্বস্তরের এলাকাবাসীকে নিয়ে আমরণ অনশন কর্মসুচি পালন করা হবে।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.