ফের মালয়েশিয়াগামী ছয় রোহিঙ্গা উদ্ধার, আটক ৫ দালাল

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
সাগরপথে অবৈধভোবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ খুরেরমুখ এলাকা থেকে আবারও ছয় রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা। এসময় সন্দেহভাজন পাঁচ দালালকে আটক করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে এ অভিযান চালানো হয়।
আটক দালালেরা হলেন-টেকনাফের মহেশখালী পাড়ার বশির আহম্মদের ছেলে মো. মনির (২৭), তার ভাই মো. নুরুল আবছার (৩৫), শাহপরীর দ্বীপের অলি আহম্মদের ছেলে মো. ইউনুস (৩২), মো. আমিন (৪৯) ও মঠপাড়ার মো. মুন্না (৩৫)।
উদ্ধার করা রোহিঙ্গাদের মধ্যে চারজন পুরুষ ও দুইজন নারী রয়েছেন। তাদের টেকনাফ ও উখিয়ার স্ব স্ব ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বিজিবি। এর আগে গত এক সপ্তাহে টেকনাফের বিভিন্ন স্থান থেকে ৭২ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করে ক্যাম্পে পাঠানো হয়েছে। এসময় আটক করা হয় তিন দালালকে।
টেকনাফ-২ বিজিবির পরিচালক লে. কর্নেল আছাদুদ জামান চৌধুরী জানান, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিজিবির একটি টহল দল মহেশখালীপাড়ায় অভিযান চালায়। এসময় সাগরপাড়ে নৌকার জন্য অপেক্ষারত চার রোহিঙ্গাকে উদ্ধার এবং সন্দেহজনক এক দালালকে আটক করা হয়।
এছাড়া একইদিন সকালে টেকনাফ সদরের মাঠপাড়া এলাকায় জনৈক মো. মুন্নার বাড়ি থেকে দুই রোহিঙ্গা নারীকে উদ্ধার করা হয়। এসময় ওই ঘর থেকে বাড়ির মালিক মুন্নাসহ সন্দেহভাজন আরও তিন দালালকে আটক করা হয়।
উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গাদের বরাত দিয়ে তিনি আরও জানান, তারা টেকনাফ ও উখিয়ার বিভিন্ন রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে বসবাস করে এবং দালালদের মোটা অঙ্কের টাকা দিয়ে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাচ্ছিল। মঙ্গলবার বিকেলে তাদের স্ব স্ব ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.