নির্বাচন পেছানোর বিক্ষোভে অস্ত্র দেখিয়ে হুমকি, যুবক আটক

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

সরস্বতী পূজার কারণে সিটি নির্বাচন পেছানোর দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে শিক্ষার্থীদের অবরোধে অস্ত্র দেখিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমন সময় আলিফ রুশদি হাসান মুন (৩২) নামে এক ব্যক্তিকে ধরে মারধর করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন শিক্ষার্থীরা। গতকাল বুধবার দুপুরে শাহবাগ মোড়ে শিক্ষার্থীদের অবরোধ চলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আলিফসহ চারজন একটি গাড়িতে করে ফার্মগেটের দিক থেকে মতিঝিলের দিকে যাচ্ছিলেন। বারডেম হাসপাতালের সামনে গেলে তার গাড়িটি শিক্ষার্থীদের অবরোধে বাধাপ্রাপ্ত হয়। শিক্ষার্থীরা গাড়ি যেতে দেওয়া হবে না জানালে আলিফ গাড়ি থেকে নেমে অস্ত্র দেখিয়ে গাড়ি ছেড়ে দিতে বলেন। এর জেরে শিক্ষার্থীরা তাকে মারধর করতে থাকলে ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে হেফাজতে নেয়।

শিক্ষার্থীরা জানায়, অবরোধ চলাকালীন সময়ে তাদের রাস্তা ছাড়তে বলা হয়। শিক্ষার্থীরা না ছাড়লে ওই ব্যাক্তি আগ্নেয়াস্ত্র বের করে হুমকি দেন।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের সহকারী কমিশনার (এসি) শেখ মোহাম্মদ শামীম বলেন, আলিফকে আমরা পুলিশি হেফাজতে রেখেছি। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডার একপর্যায়ে যুবক আগ্নেয়াস্ত্র বের করলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

আহত আলিফ বর্তমানে পুলিশি প্রহরায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি বিদেশে মানবসম্পদ রপ্তানির ব্যবসা করেন বলে জানা গেছে।

রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান বলেন, আলিফের অস্ত্রটি লাইসেন্স করা ছিল। তিনি আন্দোলনকে নিজের জীবনের জন্য হুমকি মনে করেছিলেন বলে অস্ত্র প্রদর্শন করেছিলেন এমনটি আমাদের জানিয়েছেন। পুলিশি প্রহরায় তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে তাদের আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সরস্বতী পূজার দিন ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন পড়েছে। যা পেছানোর দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে সড়ক অবরোধ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। এতে ওই এলাকার আশপাশের সব সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.