নগরীতে প্রতারণা ও জবরদখলের মাধ্যমে জমি দখলের অভিযোগ

 

 

সংবাদ সম্মেলনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

 

দ: প্রতিবেদক

নগরীর লবচনরা এলাকার সামসুর রহমানের বিরুদ্ধে প্রতারনা এবং জাল জালিয়াতির মাধ্যমে জমি জবর দখলের অভিযোগ করেছেন দিলিপ কুমার দাস। গত শনিবার খুলনা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, বটিয়াঘাটা মৌজার বি আর,এস ৪৫৮ নং খতিয়ানে প্রায় ১০ একর জমি প্রতারনা এবং জাল দলিলের মাধ্যমে জবর দখল করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে। যা পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে সি.এস. এবং এস. এ. ২৭২ এবং ১৯১  খতিয়ানের মালিক ওই জমির মালিক দিলিপ কুমার দাস, তার তিন ভাই বিজন কুমার দাস, অরিন্দম কুমার দাস এবং বাসব কুমার দাস সুরেশচন্দ্র দাস। যা তারা খাজনা প্রদান পূর্বক অদ্যাবধি ভোগ দখল করে আছেন।

গত শুক্রবার তিনি নিজ জমির দেখভাল করতে গেলে সামসুর রহমান ওরফে সামসু রাজাকার, আমিন আহম্মদ, আলী আরিফ, আবুল কালাম, সাঈদসহ বেশ কিছু সÐামার্কা লোকজন লাঠি-সোঠা নিয়ে হাজির হয়। এসময় ওই জমির সীমানা খুটি ভেঙে ফেলে। ফের জমিতে দিলিপসহ জমির মালিকদের মেরে ফেলার হুমকি দেয়। দিলীপ কুমারদের রেকর্ডিয় ৪৫৮ খতিয়ানের প্রায় ১০.৪১ একর জমি সামসুর রহমান শুধু দাবিই করেনি জাল কাগজ পত্র তৈরি করে ২০/২৫ জনের কাছে বিক্রিও করেছেন। অথচ ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইবুনালের ১১১৪/১৩ নং মামলার নথিতে সামসুর রহমান ও মোঃ ফরিদ আহম্মদ নিজেরাই স্বিকার করেছেন তাদের নামে মাথাভাঙ্গা মৌজায় ৪৫৮ খতিয়ানে কোনো জমি রেকর্ড হয়নি। এমন হয়রানী থেকে মুক্তি পেতে তিনি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *