কুষ্টিয়ায় বন্দুকযুদ্ধে মাদকের আসামি নিহত

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মাদক মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত ২টার দিকে হাটশ হরিপুর ইউনিয়নের শালদহ এলাকায় গড়াই নদীর বালু চরে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে বলে কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি নাসির উদ্দিনের ভাষ্য। নিহত নাজমুল দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া এলাকার মিরাজ মালিথার ছেলে।
পুলিশের ‘শীর্ষ মাদক চোরাকারবারিদের’ তালিকায় নাজমুলের নাম রয়েছে এবং দৌলতপুর থানায় তার বিরুদ্ধে মাদক আইনের একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি। তিনি বলেন, গড়াই নদীর চরে মাদক চোরা কারবারিদের দুই দলের মধ্যে গোলাগুলির খবর পেয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশের একটি দল রাতে সেখানে যায়।
পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুই দিক থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি করতে থাকে। পুলিশও তখন পাল্টা গুলি চালালে তারা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে নাজমুলকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। গুলিবিদ্ধ নাজমুলকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।
তিনি বলেন, কুষ্টিয়া মডেল থানার এস আই রাশেদ, এসআই আতিকুল ইসলাম, এএসআই কামরুজ্জামান ও কনস্টেবল ইমরান হোসেন এই অভিযানে আহত হয়েছেন। তাদের জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ৬০০ ইয়াবা, একটি বিদেশি পিস্তল, পিস্তলের দুটি গুলি ও দুটি ম্যাগাজিন উদ্ধারের কথাও জানিয়েছে পুলিশ।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.