কালীগঞ্জে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ, আটক ৪

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে এক বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরী (১৪) গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় শনিবার দুপুরে পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলেন বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে সেলিম পাটয়ারী, বানুড়িয়া গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে সাঈদ হোসেন, নুর আলীর ছেলে রাকিব হোসেন এবং লাল চানের ছেলে আশিককে আটক করেছে। খবর পেয়ে বিকালে ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুচ আলী জানান, গত বুধবার রাতে কালীগঞ্জ উপজেলার ৬নং ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের বানুড়িয়া গ্রামে ধর্ষিত কিশোরী বাড়ির বারান্দায় খাবার খাচ্ছিল। এ সময় ধর্ষকেরা জোরপূর্বক কৌশলে বাড়ি থেকে তাকে তুলে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে পরিবারের লোকেরা তাকে দেখতে না পেয়ে বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুজি করতে থাকে। ঘণ্টাখানেক পরে বাড়ির পাশের একটি বাগানে তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে পরিবারের লোকেরা তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে।
জানা যায়, শুধু ঘটনা ঘটিয়ে ধর্ষকরা ক্ষ্যন্ত থাকেনি। ধর্ষণের ঘটনা কাউকে না বলার জন্য পুরো পরিবারকে হত্যার হুমকি দেয়। এমনকি, শুক্রবার রাতে সাঈদ নামের ছেলেটি ধর্ষিতার পিতাকে ফোনে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এরপর তার পিতা স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে কালীগঞ্জ পুলিশকে বিষয়টি জানান।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.