অপহরণের দুই ঘণ্টার মধ্যে স্কুলছাত্রকে উদ্ধার

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
চট্টগ্রামে অপহরণের দুই ঘণ্টার মধ্যে এক স্কুলশিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর কোতোয়ালির সরকারি মুসলিম হাই স্কুল থেকে ওই ছাত্রকে অপহরণ করা হয়েছিল। পুলিশের অভিযানের মুখে অপহরণকারীরা দেড় কিলোমিটার দূরে ঘাট ফরহাদবেগে শিশুটিকে ছেড়ে দেয় বলে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আব্দুর রউফ জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, স্কুল ছুটির পর দুজন লোক শিশুটিকে প্রাইভেটকারে তুলে নিয়ে যায়। অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশি অভিযানে অপহরণকারীরা ঘাট ফরহাদবেগ এলাকায় ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ওই শিশুটি পরে রিকশায় করে বাড়িতে ফিরে আসে। শিশুটির বাবা রেয়াজউদ্দিন বাজারের ব্যবসায়ী।
কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন জানান, অপহরণকারীরা শিশুটির বাবাকে ফোন করে ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। তখন তিনি কোতোয়ালি থানায় ঘটনাটি জানান। তিনি জানান, অপহরণকারীদের অবস্থান শনাক্ত হয়ে যাওয়ায় তারা এক পর্যায়ে শিশুটিকে ঘাটফরহাদবেগ এলাকায় ছেড়ে দিলে সে রিকশা নিয়ে বাসায় চলে যায়। কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, সে বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানান ওসি। এই ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।
মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, প্রাইভেটকারটি আন্দর কিল্লা এলাকা পার হওয়ার পর অপহরণকারীরা শিশুটির গলায় ছুরি ধরে চিৎকার না করতে শাসিয়ে সিটের নিচে বসিয়ে রাখে।
কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান বলেন, শিশুকে প্রতিদিন তাদের গাড়িচালক স্কুলে আনা-নেওয়া করে। বৃহস্পতিবার নিজস্ব গাড়িচালক যায়নি। তিনি বলেন, অপহরণকারীরা মুক্তিপণ দাবি করে মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে রাখে। আমাদের অভিযান দল তাদের অবস্থান শনাক্ত করে ফেলায় তারা শিশুটিকে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.