৬ষ্ঠ কিংবা ৭ম হতে তো ম্যানইউতে আসিনি: রোনালদো

রিয়াল মাদ্রিদ এবং জুভেন্টাস ঘুরে আবারও ঘরের মাঠে ফিরে এসেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। চলতি মৌসুমের শুরুতেই জুভেন্টাস ছেড়ে ম্যানইউতে যোগ দেন সিআর সেভেন। কিন্তু রোনালদোর যোগ দেয়ারর পরও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানইউর কোনো উন্নতি নেই। একের পর এক ম্যাচে পয়েন্ট খোয়াতে খোয়াতে এখন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তারা রয়েছে সপ্তম স্থানে।

পয়েন্ট টেবিলের দিকে তাকালে মোটেও অসন্তোষ ধরে রাখতে পারেন না রোনালদো। যে কারণে এবার নিজের রাগ-ক্ষোভ ঝাড়লেন তিনি মিডিয়ার সামনে। ম্যানইউকে মোটেও সাত নম্বর স্থানে দেখতে ইচ্ছুক নন সিআর সেভেন।

দলের যে অবস্থা তাতে ম্যানইউকে পূণর্গঠন করতে কিছু সময় লাগবেই। এটা বিশ্বাস করেন রোনালদো। তবে তিনি বর্তমান কোচ রালফ রাংনিককে পরামর্শ দিয়েছেন, প্রক্রিয়াটা এখন থেকেই যেন শুরু করে দেন।

৩৬ বছর বয়সী এই ফুটবলার যখন মৌসুমের শুরুতেই ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফিরে আসেন, তখন তার ওপর সমর্থকদের তুমুল প্রত্যাশা ছিল, ক্লাবের গৌরব ফিরিয়ে আনার। কিন্তু মৌসুম শেষ হতে চললো, অথচ তার ছিটেফোটাও দেখা যায়নি।

এর মধ্যে (নভেম্বর-২০২১) কোচ ওলে গানার সোলশায়েরকে বাদ দেয়া হয়েছে। মাইকেল ক্যারিকের হাত ধরে কয়েকম্যাচ খেলার পর অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে রালফ রাংনিককে। কিন্তু ম্যানইউ রয়েছে আগের মতোই। ৬ষ্ঠ কিংবা ৭ম স্থানে থাকতে হচ্ছে তাদের।

স্কাই স্পোর্টসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রোনালদো বলেন, ‘আমি এখানে ৬ষ্ঠ কিংবা ৭ম স্থানে থাকার জন্য ফিরে আসিনি, অথবা ৫ম স্থানে। আমি এখানে এসেছি শিরোপা জয় করতে এবং লড়াই করতে। আমি মনে করি ভালো কিছু গড়ে তোলার দরকার। অনেক সময় এ জন্য আপনাকে পুরনো কিছু ভাঙতে হবে। এটাই নিয়ম।’

‘সুতরাং, কেন নয়? নতুন বছর, নতুন জীবন। আমি আশা করি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এমন এক স্থানে যেতে সক্ষম, যেমনটা সমর্থকরা চায়। তারা এটা আশা করতেই পারে। আমরাও সামর্থ্য রাখি পরিবর্তন এনে নতুন কিছু করার। আমি পথটা জানি। কিন্তু আমি এখানে সেটা উল্লেখ করবো না। কারণ আমি মনে করি, আমার পক্ষ থেকে এ ধরনের কোনো বিষয় নিয়ে কিছু বলা উচিৎ হবে। আমি যা বলতে চাই, তা অবশ্যই ভালোর জন্য। আমরা সবাই চাই। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ধারণ করে। সুতরাং, পরিবর্তন প্রয়োজন এখানে।’

সোলশায়েরকে অনেকটাই মিস করছেন রোনালদো। একই সঙ্গে রাংনিককে সময় দেয়ারও পক্ষপাতি তিনি। আর এই যে পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, এই সময়টা খুব কঠিন। রোনালদো বলেন, ‘এ বিষয়টা সব সময়ই দুঃখজনক এবং কঠিন। ওলে (সোলশায়ের) আমার সঙ্গে খেলার বিষয়টা নিয়ে অনেক সহনীয় হয়ে গিয়েছিল। তিনি এখন সাবেক কোচ এবং দুর্দান্ত একজন মানুষ। তিনি যখন চলে যান, তখন সবাই দুঃখ পেয়েছিল। তবে এটা ফুটবলেরই একটা অংশ। রাংনিক আসার পর কিছু সময় অতিবাহিত হয়েছে। মাত্র ৫ সপ্তাহ। তাকে আরো সময় দিতে হবে। তাহলেই ভালো কিছুর প্রত্যাশা করতে পারি।’

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *