৩০ বছর বয়সীরাও পাবেন টিকা

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
দেশে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে টিকা প্রদানের বয়সসীমা কমিয়ে ৩০ বছর নির্ধারণ করা হয়েছে। ফলে এখন ৩০ বছর বয়সীরাও করোনা টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারবেন। সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে বিষয়টি জানানো হয়।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের এমআইএসের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, রবিবার এ বিষয়ে একটি মিটিং করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ছাড়া প্রতি এক সপ্তাহ পর পর ৫ বছর কমিয়ে বয়সসীমা নির্ধারণ করা হবে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এ বিষয়ে বলেন, গতকাল রোববার একটি বৈঠকে করোনা টিকা গ্রহণের ন্যূনতম বয়সসীমা ৩০ কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।
দেশে টিকা নিবন্ধনে প্রথমে নাগরিকদের বয়সসীমা ৫৫ বছর নির্ধারণ করা হয়েছিল। এরপর ৫৫ থেকে কমিয়ে ৪৪ বছর নির্ধারণ করা হয়। ২য় দফায় কমিয়ে ৪০ বছর করা হয়। তৃতীয় দফায় টিকা গ্রহীতাদের বয়স কমিয়ে ৩৫ বছর করা হয়। চতুর্থ দফায় এবার তা আরও কমিয়ে ৩০ বছর করা হলো।
জানা গেছে, এ পর্যন্ত দেশের জনসংখ্যার প্রায় চার শতাংশ মানুষ টিকা নিয়েছেন। ভারতের সেরাম ইন্সটিটিউটের কাছ থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের সরবরাহ ঘাটতির কারণে বাধার মুখে পড়া টিকাদান কর্মসূচি সম্প্রতি সিনোফার্ম, মডার্না ও ফাইজারের ভ্যাকসিন আসার পর আবারো চালু হয়েছে।
সরকার এ পর্যন্ত বিভিন্ন উৎস থেকে ১ কোটি ৭৯ টিকা পেয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ভারত ও চীন থেকে উপহার পাওয়া ৩৩ লাখ ও ১১ লাখ ডোজ টিকা। ১৭ জুলাই পর্যন্ত দেশের ১ কোটি ১১ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে, যাদের মধ্যে ৪৩ লাখ মানুষ দুটি ডোজই পেয়েছেন।

দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ জে এফ জয়

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *