১৫ বছর আগের ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

শেরপুরে ১৫ বছর আগের ধর্ষণ মামলায় এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল সোমবার শেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিত মিলন মিয়া শেরপুর সদর উপজেলার গাজীরখামার ইউনিয়নের খরখরিয়া গ্রামের লোকমান হোসেন খোকার ছেলে। ঘটনার পর থেকেই তিনি পলাতক রয়েছেন। যাবজ্জীবনের পাশাপাশি ধর্ষণের ফলে জন্ম নেওয়া কন্যা সন্তানের ভরণ-পোষণের জন্য মিলনকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন বিচারক। ওই টাকা আদায় করে ওই নারীকে প্রদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মামলার বিবরণে বলা হয়, ২০০৪ সালের ১৫ নভেম্বর স্থানীয় এক তরুণীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন মিলন। এক পর্যায়ে মেয়েটি অন্তঃস্বত্ত¡া হয়ে পড়লে মেয়েটি মিলনকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে মিলন সম্পর্ক ও মেলামেশার কথা অস্বীকার করেন।

এরপর প্রায় সাত মাসের অন্তঃস্বত্ত¡া অবস্থায় একই বছরের ১ জুন ট্রাইব্যুনালে মিলনকে আসামি করে মামলা করেন মেয়েটি। তদন্ত শেষে ৩১ জুলাই পুলিশ এ মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করলে মামলার বিচার শুরু হয়।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.