‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরামে’র নতুন কমিটি : মিন্টু সভাপতি ও জাহিদ সাধারণ সম্পাদক

খুলনা প্রেসক্লাব ও খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি, দৈনিক রাজপথের দাবীর সম্পাদক  বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন মিন্টুকে পুনরায় সভাপতি এবং খুলনা প্রেসক্লাব ও খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার খুলনা ব্যুরো প্রধান এস এম জাহিদ হোসেনকে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক করে ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’ খুলনার নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠিত হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মরত সাংবাদিকদের সমন্বয়ে ২০১৮ সালের ১ল ডিসেম্বর খুলনায় ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’ এর প্রথম কমিটি গঠিত হয়। কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় পূনরায় আগামী ৩ বছরের জন্য নতুন এই কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়েছে।

রবিবার খুলনা প্রেসক্লাবের হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী বিভিন্ন গণমাধ্যম সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সভায় ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’, খুলনার ৫১ সদস্য বিশিষ্ট এই কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’ খুলনার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন মিন্টু। সভা পরিচালনা করেন ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’ এর সাধারণ সম্পাদক এস এম জাহিদ হোসেন।

সভার শুরুতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ওই দিন ঢাকার ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বাড়িতে অবস্থানরত ঘাতকদের হাতে নিহতদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করা হয় ও তাঁদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদকদের মধ্যে বেগম ফেরদৌসী আলী, এস এম নজরুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী সনি, আসিফ করিব, মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ এবং এস এম সাহিদ হোসেনকে এই কমিটির উপদেষ্টা করা হয়।

কমিটির অন্য কর্মকর্তারা হলেন ঃ সিনিয়র সহ-সভাপতিঃ শেখ আবু হাসান, সহ-সভাপতি ঃ  ফারুক আহমেদ, মোঃ সাহেব আলী, মামুন রেজা ও মোঃ শাহ আলম, যুগ্ম সম্পাদক ঃ মল্লিক সুধাংশু ও মোঃ হুমায়ুন কবীর, কোষাধ্যক্ষ ঃ  নেয়ামুল হোসেন কচি, সাংগঠনিক সম্পাদকঃ আসাদুজ্জামান রিয়াজ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদকঃ বিমল সাহা, আইন বিষয়ক সম্পাদকঃ এ্যাড. ফরিদ আহমেদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদকঃ রকিব উদ্দিন পান্নু, সাংস্কৃতিক সম্পাদকঃ অমিয় কান্তি পাল, সমাজকল্যণ ও ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক ঃ আনোয়ারুল ইসলাম কাজল, প্রচার সম্পাদকঃ আলমগীর হান্নান, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সম্পাদকঃ  এস এম কামাল হোসেন, যোগাযোগ ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ শেখ তৌহিদুল ইসলাম তুহিন, প্রশিক্ষণ ও সেমিনার বিষয়ক সম্পাদকঃ শেখ মাহমুদ হাসান সোহেল, পাঠাগার সম্পাদকঃ  আবু নুরাইন খোন্দকার, প্রকাশনা সম্পাদকঃ শেখ মোঃ সেলিম, দপ্তর সম্পদক ঃ দিলীপ কুমার বর্মণ, ক্রীড়া সম্পাদকঃ এস এম ফরিদ রানা, মহিলা বিষয়ক সম্পদক ঃ রীতা রানী দাস।

সদস্যরা হলেনঃ আহমদ আলী খান, এ কে হিরু, অরুণ সাহা, মোজাম্মেল হক হাওলাদার, মোঃ আব্দুল হালিম, বাপ্পি খান, বাবুল আক্তার, শেখ লিয়াকত হোসেন, মোঃ জাহিদুল ইসলাম, মীর মনিরুজ্জামান, মোঃ আব্দুল হামিদ, শেখ জাহিদুল ইসলাম, আমজাদ আলী লিটন, মিলন হোসেন, এম এম মিন্টু, হাসান আল মামুন, মোঃ হেলাল মোল্লা ও রাজু সাহা (বিপ্লব)।

সভায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী স্থানীয় পত্রিকা, জাতীয় পত্রিকা, অন লাইন পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’, খুলনার সাধারণ সদস্য হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভায় ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম’ খুলনার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এই ফোরামের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ব্যখ্যা করে বলেন, সাংবাদিকদের এই ফোরাম মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রগতিশীল, অসাম্প্রদায়িক ও মুক্ত চিন্তায় বিশ্বাসী। সাংবাদিকদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধায় সহযোগিতা করা, ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে সংবাদ পরিবেশন, গঠনমূলক সমালোচনার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ শক্তিকে সহায়তা করা এবং সর্বক্ষেত্রে সাম্প্রদায়িক সংকীর্ণমনা, ধর্মান্ধ, জঙ্গী ও স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলা ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ শক্তির পাশে দাঁড়ানো এই ফোরামের মূল লক্ষ্য।
সভায় ‘স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরামে’র  নতুন কার্যনির্বাহী কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে এবং সবরকম সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়ে বক্তৃতা করেন খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শেখ আবু হাসান ও ফারুক আহমেদ, সাবেক সাধারণ  সম্পাদক মোঃ সাহেব আলী ও মল্লিক সুধাংশু, দৈনিক দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক এস এম সাহিদ হোসেন, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিয়াজ, খুলনা প্রেসক্লাবের সহকারী সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম কাজল, সাংবাদিক মোজাম্মেল হক হাওলাদার, বাবুল আক্তার, বিমল সাহা,  প্রমুখ।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.