স্ত্রীর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন, স্বামী আটক

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে রোজিনা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূকে তার স্বামী আব্দুল­াহ (২৮) ঝলসে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। দগ্ধ রোজিনা বেগমের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার সকালে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

এর আগে, সোমবার রাতে পাটগ্রাম পৌরসভার নিউপূর্বপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত স্বামী আব্দুল­াহকে আটক করেছে পুলিশ। আটক আব্দুল­াহ উপজেলার নিউ পূর্বপাড়া এলা মোমিন মিয়ার ছেলে। গৃহবধূ রোজিনা বেগম পাশ্ববর্তী জেলা নীলফামারী জেলার জলঢাকা এলাকার মেয়ে।

এলাকাবাসী জানান, প্রতিদিনই গৃহবধূ রোজিনাকে নির্যাতন করে আসছিল স্বামী আব্দুল­াহ। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রোজিনা তার স্বামীকে জানায় যে- বাড়িতে বেশ কিছু নিকটতম আত্মীয় আসবে। এ কথা শুনে মোবাইলে রোজিনাকে গালাগালি করে আব্দুল­াহ। ঘণ্টাখানেক পর বাড়িতে ফিরেই বিষয়টি নিয়ে রোজিনাকে মারধর শুরু করেন তিনি। পরে রোজিনার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় পাষণ্ড স্বামী। এতে রোজিনার গলাসহ তার শরীরের বেশ কিছু স্থান পুড়ে যায়।

এসময় রোজিনার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে পাষণ্ড স্বামী আব্দুল­াহ পালাতে চেষ্টা করে। তবে স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশকে খরর দেয়। পরে রোজিনাকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তবে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে পাটগ্রাাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘ওই গৃহবধূর স্বামী আব্দুল­াহকে আটক করে জেল হাজতে পাঠান হয়েছে।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *