সোলেমানি হত্যার জেরে ৭ বছরে সর্বোচ্চ দাম স্বর্ণ ও তেলে

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

ইরানের সমরনায়ক কাসেম সোলেমানি হত্যার জেরে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গত ৭ বছরের মধ্যে বিশ্ববাজারে সর্বোচ্চ মূল্যবৃদ্ধি হয়েছে স্বর্ণের। এরই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে তেলের দামও। সর্বশেষ গত বছরের মাঝামাঝি বিশ্ববাজারে তেলের মূল্য এতোটা বৃদ্ধি পায়।

রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি নিউজ জানায়, সোমবার বিশ্ববাজারে স্বর্ণের মূল্যবৃদ্ধি ঘটে প্রায় ১.৫ শতাংশ।  রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে টালমাটাল পরিস্থিতিতে স্বর্ণে বিনিয়োগকে সবচেয়ে নিরাপদ মনে করা হয়।

খবরে বলা হয়, সোমবার মূল্য বৃদ্ধির এক পর্যায়ে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়ায় ১ হাজার ৫৭৯.৫৫ মার্কিন ডলার। ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসের পর থেকে এটাই স্বর্ণের সর্বোচ্চ মূল্য। যদিও গ্রিনিচ মান সময় সকাল ৮টা ৭ মিনিটে স্বর্ণের মূল্য কিছুটা কমে আউন্সপ্রতি দাঁড়ায় ১ হাজার ৫৭১.৯৫। তবুও তা আগের মূল্যের চেয়ে প্রায় ১.৩ শতাংশ বেশি।

রয়টার্স জানায়, শুধু স্বর্ণ নয়, সোমবার আরেক মূল্যবান ধাতু প্যালাডিয়ামের মূল্যবৃদ্ধিতেও রেকর্ড হয়। এদিন প্রতি আউন্স প্যালাডিয়ামের মূল্য দাঁড়ায় ২ হাজার ১১.৪৮ মার্কিন ডলার।

মার্কিন হামলায় কাসেম সোলেমানির মৃত্যুসংবাদ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই বিশ্ববাজারে বেড়ে চলেছে তেলের দাম। ইরান-আমেরিকা উত্তেজনার জেরে মধ্যপ্রাচ্যে যে কোনো সংঘাত বাজারে তেলের সরবরাহ বাধাগ্রস্ত করবে এমন শঙ্কা ছড়িয়ে পড়েছে। সার্বিক পরিস্থিতিতে সোমবারও তেলের মূল্য বাড়ে।

খবরে বলা হয়, মার্কিন বেঞ্চমার্কে জ্বালানি তেলের দাম বেড়েছে ২ শতাংশ। গত এপ্রিলের পর এই প্রথম তেলের দাম এতোটা বৃদ্ধি পেলো। অন্যদিকে ব্রেন্ট বেঞ্চমার্কে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ২.৩ শতাংশেরও বেশি। এখানে প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ওঠে ৭০ ডলার। ব্রেন্ট মার্কের হিসেবে গত মে মাসের পর এই প্রথম তেলের দাম এতোটা বাড়লো। আগামীতে ইরান-আমেরিকা উত্তেজনা দানা বাঁধতে থাকলে জ্বালানি তেল ও স্বর্ণের দাম আরও বৃদ্ধি পেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.