July 22, 2024
জাতীয়

সোনার দাম কমল ৪ দিনেই

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

সোনার দর কমছে। মাত্র চার দিনের ব্যবধানে বাংলাদেশের বাজারে ভালো মানের সোনার দাম প্রতি ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি-বাজুস। আজ মঙ্গলবার এই নতুন দর কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে বাজুস।

সাড়ে চার মাস পর বৃহস্পতিবার ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার দিন প্রতি ভরি ভালো মানের সোনার দাম একই পরিমাণ বাড়ানো হয়েছিল। চার দিন যেতে না যেতেই সেই আগের দামে সোনা বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে বাজুস। বাড়িয়েছিল বাংলাদেশের বাজারে ভালো মানের সোনার দাম প্রতি ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা বেড়েছে।

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমায় স্থানীয় বাজারে দাম কমানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাজুসের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা।  তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার মূল্য হ্রাস পাওয়ার ফলে স্থানীয় বুলিয়ন মার্কেটে এর প্রভাব পড়েছে। ফলশ্র“তিতে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে আমরা দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

নতুন দর অনুযায়ী, প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) সবচেয়ে ভালো মানের (২২ ক্যারেট) সোনা মঙ্গলবার থেকে ৫০ হাজার ১৫৫ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ক্যারেট সোনা বিক্রি হবে ৪৭ হাজার ৮২২ টাকা। আর ১৮ ক্যারেট সোনার দাম হবে ৪২ হাজার ৮০৭ টাকায়।

পর্যন্ত ২২ ক্যারেট সোনা ৫১ হাজার ৩২২ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ক্যারেট সোনা বিক্রি হবে ৪৮ হাজার ৯৮৯ টাকা।আর ৪৩ হাজার ৯৭৩ টাকায় বিক্রি হবে ১৮ ক্যারেট মানের সোনা। এ হিসাবে ২২, ২১ এবং ১৮ ক্যারেট সোনার দাম ভরিতে এক হাজার ১৬৬ টাকা করে কমেছে।

সোনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ভরিতে কমেছে ৭৫৮ টাকা। মঙ্গলবার থেকে এই সোনা ২৬ হাজার ৮২৭ টাকায় বিক্রি হবে। সোমবার বিক্রি হয়েছে ২৭ হাজার ৫৮৫ টাকায়। জুয়েলারি ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি ভরি ২২ ক্যারেটে ৯১ দশমিক ৬ শতাংশ, ২১ ক্যারেটে ৮৭ দশমিক ৫ শতাংশ, ১৮ ক্যারেটে ৭৫ শতাংশ বিশুদ্ধ সোনা থাকে।

সনাতন পদ্ধতির সোনা পুরনো অলঙ্কার গলিয়ে তৈরি করা হয়। এ ক্ষেত্রে কত শতাংশ বিশুদ্ধ সোনা মিলবে তার কোনো মানদণ্ড নেই। অলংকার তৈরিতে সোনার দরের সঙ্গে মজুরি ও মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) যোগ করে দাম ঠিক করা হয়।

আজ মঙ্গলবার থেকে বাংলাদেশের বাজারে প্রতি ভরি ২৩ ক্যারেট প্লাটিনাম ৬১ হাজার ৮১৯ হাজার টাকায় বিক্রি হবে। সোমবার পর‌্যন্ত বিক্রি হয়েছে ৬৪ হাজার ১৫২ হাজার টাকায়। বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো প্লাটিনামের দর নির্ধারণ করে দেয় বাজুস। তার আগে কখনও বাংলাদেশের বাজারে মূল্যবান এই ধাতুটির দাম ঠিক করে দেয়া হত না।

অনেক দিন পর রূপার দরও কমিয়েছে বাজুস। বেশ কিছু দিন ধরে প্রতি ভরি রূপা এক হাজার ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল। মঙ্লবার থেকে তা ৯৩৩ টাকায় বিক্রি হবে বলে জানানো হয়েছে।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *