April 22, 2024
খেলাধুলা

সুপার ওভারে লঙ্কানদের হারাল দ.আফ্রিকা

কাছ থেকেও তিন স্টাম্পে থ্রো লাগাতে পারলেন না নিরোশান ডিকভেলা। তার অবিশ্বাস্য ব্যর্থতায় শেষ বলে কোনোমতে এক রান নিয়ে ম্যাচ টাই করলেন ইমরান তাহির ও ডেল স্টেইন। সুপার ওভারে ঝড় তুললেন ডেভিড মিলার। দুর্দান্ত এক ওভারে বাকিটা সারলেন লেগ স্পিনার তাহির। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নাটকীয় জয় পেল দক্ষিণ আফ্রিকা।

লাসিথ মালিঙ্গার করা সুপার ওভারে ১৪ রান নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। একটি করে ছক্কা-চারে ১৩ রানই আসে মিলারের ব্যাট থেকে।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে নিজের সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা তাহিরের ওভার থেকে শ্রীলঙ্কা নিতে পারে মাত্র ৫ রান। সুপার ওভারে ৯ রানে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে স্বাগতিকরা।

শেষ ওভারে মাত্র পাঁচ রান ডিফেন্ড করে জয়ের আশা জাগিয়েছিলেন লঙ্কান পেসার ইসুরু উদানা। ডিকেভলার ব্যর্থতায় তা সম্ভব হয়নি। নিজের শেষ দুই ওভারে মাত্র ৩ রান দিয়ে লঙ্কানদের ঘুরে দাঁড়ানোয় সবচেয়ে বড় অবদান রাখেন অধিনায়ক মালিঙ্গা।২৩ বলে ৪১ রানের বিস্ফোরক ইনিংসে দলকে সহজ জয়ের পথে রেখেছিলেন মিলার। শেষের দিকে লঙ্কানদের দারুণ বোলিং ও স্বাগতিকদের বাজে ব্যাটিংয়ে দেখা মিলে টি-টোয়েন্টিতে দ্বাদশ টাইয়ের।

কেপ টাউনের নিউল্যান্ডসে মঙ্গলবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি শ্রীলঙ্কার। দুই ব্যাটিং ভরসা ডিকভেলা ও কুসল মেন্ডিস রানের খাতাই খুলতে পারেননি। অভিষিক্ত আভিশকা ফার্নান্দো ফিরে যান দুই ছক্কায় ১৬ রান করে।

সম্ভাবনা জাগিয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি অ্যাঞ্জেলো পেরেরা ও থিসারা পেরেরা। তাদের বিদায়ের মাঝে তাহিরের গুগলিতে বিভ্রান্ত হয়ে স্টাম্পড হয়ে ফিরেন দুই ছক্কা ও তিন চারে ২৯ বলে ৪১ রান করা কামিন্দু মেন্ডিস।

আঁটসাঁট বোলিংয়ে ২৫ রানে ৩ উইকেট নেন আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো।

ছোট লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই রান আউট হয়ে ফিরে যান রিজা হেনড্রিকস। টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারের মতো বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলা কুইন্টন ডি ককও বেশিক্ষণ টিকেননি।

জেফরি ভ্যান্ডারসের বলে পয়েন্টে ধরা পড়েন অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসি।

দশম ওভারে ৫২ রানে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়া দক্ষিণ আফ্রিকার ত্রাতা রাসি ফন ডার ডাসেন ও মিলার।

১৮৮তম আন্তর্জাতিক ম্যাচে এসে প্রথমবারের মতো উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো ‘কিলার’ মিলার এসেই চড়াও হন বোলারদের ওপর। উদানার এক ওভারে তিন চার ও এক ছক্কায় ২০ রান নিয়ে সমীকরণ সহজ করেন বিস্ফোরক এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। জয়ের জন্য শেষ ৫ ওভারে ৩২ রান প্রয়োজন ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার।ফন ডার ডাসেনকে বিদায় করে ৬৬ রানের জুটি ভাঙেন মালিঙ্গা। দুই রান নেওয়ার চেষ্টায় সেই ওভারেই রান আউট হয়ে যান মিলার। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের ২৩ বলে খেলা ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংস গড়া পাঁচ চার ও এক ছক্কায়।

১৯তম ওভারের শেষ বলে কাগিসো রাবাদাকে বোল্ড করে দেন মালিঙ্গা। জয়ের জন্য শেষ ওভারে স্বাগতিকদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৫ রান। উদানার সেই ওভার থেকে প্রথম বলে সিঙ্গেল নেন দুমিনি। পরের দুটি বল ডট খেলেন স্টেইন। চতুর্থ বলে সিঙ্গেল নিয়ে স্ট্রাইক দেন দুমিনিকে।

পঞ্চম বলে দুই রান নেওয়ার চেষ্টায় রান আউট হয়ে যান বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ডিকভেলার ব্যর্থতায় শেষ বলে এক রান নিয়ে ম্যাচ টাই করে ফেলেন তাহির ও স্টেইন। ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে।

আগামী শুক্রবার সেঞ্চুরিয়নে হবে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি।

উইকেটের সামনে-পিছনে দারুণ একটি দিন কাটানো ‘কিপার-ব্যাটসম্যান’ মিলার জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ২০ ওভারে ১৩৪/৭ (ডিকভেলা ০, ফার্নান্দো ১৬, মেন্ডিস ০, কামিন্দু ৪১, অ্যাঞ্জেলো ১৬, থিসারা ১৯, ডি সিলভা ১৪, উদানা ১২*, দনাঞ্জয়া ৮*;  স্টেইন ১/২৫, রাবাদা ১/৪২, সিপামলা ১/১৯, তাহির ১/২১, ফেলুকওয়ায়ো ৩/২৫)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২০ ওভারে ১৩৪/৮ (ডি কক ১৩, হেনড্রিকস ৮, দু প্লেসি ২১, ফন ডার ডাসেন ৩৪, মিলার ৪১, দুমিনি ৯, ফেলুকওয়ায়ো ৪, রাবাদা ০, স্টেইন ১*, তাহির ১*; মালিঙ্গা ২/১১, ডি সিলভা ১/২৮, দনাঞ্জয়া ১/২৮, ভ্যান্ডারসে ১/২৫, মেন্ডিস ০/৯, উদানা ০/৩২)

ফল:  টাই, সুপার ওভারে ৯ রানে জয়ী দক্ষিণ আফ্রিকা

ম্যান অব দা ম্যাচ: ডেভিড মিলার

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *