May 13, 2024
আঞ্চলিক

সুন্দরবনকে মায়ের মত ভালবাসতে হবে : উপমন্ত্রী

 

কয়রা প্রতিনিধি

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার বলেছেন, সুন্দরবনকে জীবন জীবিকার অংশ হিসেবে না নিয়ে মায়ের মত ভালবাসেন। আমরা মায়ের কাছ থেকে কিন্তু প্রতিদান আশা করি না, তারপরেও মা যদি কিছু দেয় সেটাই আমাদের কাছে অনেক। আপনারা বিষ দিয়ে মাছ ধরবেন না, এতে মাছ নয় সমস্ত জলজ প্রাণী শেষ হয়ে যায়। ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য হুমকি স্বরুপ। সুন্দরবনকে বাঁচাতে বনের উপর নির্ভরশীলদের বিকল্প কর্ম সংস্থান সৃষ্টি করতে হবে। সহ ব্যবস্থাপনা কমিটিকে সকল প্রকার সহযোগিতা কর হবে।

গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় সুন্দরবন পশ্চিম বনবিভাগের নলিয়ান রেঞ্জ সংলগ্ন মিলনায়তনে সুন্দরবন দাকোপ-কয়রা সহ-ব্যবস্থাপনা সংগঠনের (সিএমসি) সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপমন্ত্রী একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে বন রক্ষার দায়িত্ব দিয়েছেন। তাই সুন্দরবনকে সুন্দর রাখতে আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। এক সময় অনেক ধনী পরিবার ও ইলিশ মাছ খেতে পারতো না। সরকার জাটকা নিধন বন্ধ করায় আজ সব শ্রেণি পেশার মানুষ ইলিশের স্বাদ গ্রহন করতে পারছে। তাই বন রক্ষা করতে যা যা করা দরকার সরকার তা করবে।

সুন্দরবন খুলনা সার্কেলের বন সংরক্ষক (সিএফ) মোঃ আমীর হোসাঈন চৌধুরীর সভাপতিত্বে মত বিনিময় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ বশিরুল-আল মামুন, বাগেরহাট পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান, দাকোপ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল ওয়াদুদ। কাশিয়াবাদ স্টেশন কর্মকর্তা মোঃ সুলতান মাহমুদ হাওলাদারের রিচালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দাকোপ-কয়রা সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও মহেশ^রীপূর ইউপি চেয়ারম্যান বিজয় কুমার সরদার।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন খুলনা রেঞ্জের সহকারি বন সংরক্ষক (এসিএফ) মোঃ আবু সালেহ, দাকোপ থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) দেবাশীষ,সুতারখালী ইউপি চেয়ারম্যান ও আ‘লীগ নেতা মোঃ মাসুম আলী ফকির, সাবেক শিক্ষক সাহাবুদ্দিন গাজী, সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির কোষাধ্যক্ষ সাংবাদিক রিয়াছাদ আলী, সিপিজির গ্রæপ লিডার আছাদুজ্জামান ফকির, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন আরাফাত মিলন প্রমুখ। মতবিনিময় সভায় বন বিভাগের বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারী, সিএমসি ও সিপিজি সদস্য, ডলফিন কনজেরভেশন ফোরামের সদস্য, আইনশৃংখলা রক্ষা বাহিনীর সদস্য সহ স্থানীয় গন্য-মান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *