সিদ্ধিরগঞ্জে ২ চাঁদাবাজ আটক

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি বড়বাড়ি পুকুরপাড় ও মৌচাক এলাকায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা (ইজিবাইক) থেকে চাঁদা আদায় চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেল ৫টায় থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামসুল আলম তাদের আটক করেন। আটক ব্যক্তিদের নাম রুবেল ও রুহুল আমিন। এসময় আনোয়ার হোসেন আশিক নামে আরেকজন পালিয়ে যান। তিনি ওই চক্রের মূল হোতা বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামসুল আলম বলেন, শনিবার বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি বড়বাড়ি পুকুরপাড় ও মৌচাক এলাকায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা (ইজিবাইক) থেকে চাঁদা আদায় নিয়ে মারামারি হচ্ছিল। সেখান থেকে পুলিশ দু’জনকে আটক করেছে।

এলাকাবাসী জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি বড়বাড়ি পুকুরপাড় থেকে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের মৌচাক বাসস্ট্যান্ড ও একই এলাকা থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ পুল এলাকায় চলাচলকারী প্রায় শতাধিক অটোরিকশা থেকে ৫০ টাকা করে চাঁদা আদায় করে একটি চক্র। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালেই অটোরিকশাচালকদের মারধর করা হয়।

শনিবার বিকেলে কয়েকজন চালক চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাদের মারধর করে চাঁদাবাজ চক্রের কয়েকজন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে রুবেল ও রুহুল আমিনকে আটক করে।

পুলিশ ও একাধিক সূত্র জানায়, অভিযুক্ত আশিক সিদ্ধিরগঞ্জ থানা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। আলোচিত সাত খুন মামলা থেকে অব্যাহতি পাওয়ার পর আওয়ামী লীগে যোগ দেন। তিনি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়ার অন্যতম ক্যাডার হিসেবে পরিচিত। আনোয়ার হোসেন আশিকের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় প্রায় ২০টি মামলা রয়েছে।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.