সিঙ্গাপুরে মূল্যস্ফীতি বেড়ে ১৪ বছরে সর্বোচ্চ

সিঙ্গাপুরে মূল্যস্ফীতির হার বেড়েই চলেছে। চলতি বছরের আগস্টে মূল্যস্ফীতি বেড়ে ১৪ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ হয়েছে দেশটিতে। কারণ খাদ্য ও পরিষেবার খরচ বেড়েছে ব্যাপকভাবে। শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সিঙ্গাপুরের মুদ্রা কর্তৃপক্ষ ও বাণিজ্য-শিল্প মন্ত্রণালয় এক যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছে, বার্ষিকভিত্তিতে এক বছর আগের তুলনায় আগস্টে মূল মূল্যস্ফীতি (ব্যক্তিগত পরিবহন ও বাসস্থান ছাড়া) বেড়েছে পাঁচ দশমিক এক শতাংশ, যা ২০০৮ সালের নভেম্বরের পর সর্বোচ্চ।

তাছাড়া একই সময়ে অর্থাৎ গত মাসে দেশটির হেডলাইল ভোক্তা মূল্যসূচক বা সামগ্রিক মূল্যস্ফীতি বেড়ে সাত দশমিক পাঁচ শতাংশে দাঁড়ায়, যা ২০০৮ সালের জুনের পর সর্বোচ্চ। সেখানে জুলাইতে মূল্যস্ফীতি পৌঁছায় সাত শতাংশে।

ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনা, বিশ্বব্যাপী দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, সরবরাহ সংকট, খাদ্য জাতীয়তাবাদ ও অপ্রত্যাশিত আবহাওয়া ছাড়াও নানা কারণে দেশটিতে অনিশ্চয়তা বাড়াবে বলে আশা করা হচ্ছে।

মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে সিঙ্গাপুর এরই মধ্যে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। কিন্তু আগস্টের পরিসংখ্যানে মনে হচ্ছে সামনে আরও চ্যালেঞ্জিং সময় আসছে।

শুধু সিঙ্গাপুরে নয় করোনা মহামারির পর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় সব দেশে ভোক্তা মূল্যসূচক বেড়ে গেছে। কারণ পণ্যের দাম বেড়ে আকাশচুম্বী হয়েছে। যদিও মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে অনেক দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বাড়িয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *