সাশ্রয়ী দামে স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসরের নতুন ফোন আনলো ওয়ালটন

দেশের স্মার্টফোন বাজারে ঝড় তুলতে আসছে ওয়ালটনের নতুন ডিভাইস ‘প্রিমো এসএইট মিনি’। স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসরসমৃদ্ধ দুর্দান্ত ফিচারের স্মার্টফোনটিকে বলা হচ্ছে ‘দ্য গেমিং ওয়ারিয়র’। সময়ের বাজেটসেরা এই ফোনটির প্রি-বুক নিচ্ছে ওয়ালটন। প্রি-বুক দেয়া ক্রেতাদের জন্য রয়েছে ১৫০০ টাকা মূল্যছাড়, টি-শার্ট উপহার এবং ইন্টারনেট বান্ডেল অফার।

ওয়ালটন মোবাইলের চিফ বিজনেস অফিসার এস এম রেজওয়ান আলম জানান, ‘প্রিমো এসএইট মিনি’ স্মার্টফোনটির ডিজাইন, প্রসেসর, র‌্যাম-রম, ক্যামেরা, বিল্ট কোয়ালিটি, ব্যাটারিসহ অন্যান্য কনফিগারেশন নিঃসন্দেহে প্রযুক্তিপ্রেমীদের মন জয় করে নেবে। স্টোন হোয়াইট, ইঙ্ক ব্ল্যাক এবং ফরেস্ট গ্রিন রঙের দৃষ্টিনন্দন ফোনটি ঈদের আগেই ৪ জিবি ও ৬ জিবি র‌্যামের দুটি ভার্সনে বাজারে আসবে। এখন ৪ জিবি র‌্যামের ভার্সনটির প্রি-বুক নেয়া হচ্ছে। যার মূল্য ১৩,৯৯৯ টাকা হলেও প্রি-বুক দেয়া ক্রেতারা এটি পাবেন মাত্র ১২,৪৯৯ টাকায়।

 

তিনি জানান, দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা, মোবাইল ব্র্যান্ড ও রিটেইল আউটলেটের পাশাপাশি ঘরে বসেই ওয়ালটন গ্রুপের ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ই-প্লাজা (eplaza.waltonbd.com) এবং ওয়ালকার্ট (walcart.com) থেকে ‘প্রিমো এসএইট মিনি’র ৪ জিবি ভার্সনটির প্রি-বুক দিতে পারছেন গ্রাহক। ১৭ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া প্রি-বুকিং চলবে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত। ২৫ এপ্রিল থেকে ফোনটি ডেলিভারি দেয়া হবে।

ওয়ালটন মোবাইলের ক্রিয়েটিভ অ্যান্ড কমিউনিকেশন্সের ইনচার্জ হাবিবুর রহমান তুহিন জানান, ‘প্রিমো এসএইট মিনি’ ফোনটিতে রয়েছে ১৯.৫:৯ অ্যাসপেক্ট রেশিওর ৬.৫৩ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস এলটিপিএস ডিসপ্লে। ইনসেল ল্যামিনেশন প্রযুক্তির পর্দার রেজ্যুলেশন ২৪৬০ বাই ১০৮০ পিক্সেল। যা ব্যবহারকারীকে অসাধারণ ফিল দেবে।

‘প্রিমো এসএইট মিনি’ স্মার্টফোন হাতে ওয়ালটন মোবাইলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির অন্য সদস্যরা

ভিস্মার্ট যুক্ত অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত ওয়ালটনের নতুন এই ফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ২.০ গিগাহার্জ গতির শক্তিশালী কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ অক্টাকোর প্রসেসর। গ্রাফিক্স হিসেবে আছে কোয়ালকম অ্যান্ড্রেনো ৬১০। এরসঙ্গে থাকছে ৪ জিবি এলপিডিডিআর৪এক্স র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ, যাতে ইউএফএস মেমোরি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে করে দ্রুতগতির ডাটা ট্রান্সফার সুবিধার সঙ্গে ব্যবহারকারী দারুণ পারফরম্যান্স পাবেন। ফোনটিতে ২৫৬ জিবি মাইক্রো এসডি কার্ড সাপোর্ট সুবিধা রয়েছে। ফলে অনেক বেশি ডকুমেন্ট, ছবি, ভিডিও ইত্যাদি সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে।

‘প্রিমো এসএইট মিনি’ স্মার্টফোনটির অন্যতম বিশেষ ফিচার এর ক্যামেরা। ফোনটির পেছনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশসহ ১.৮ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ এআই কোয়াড (চার) ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রধান সেন্সরটি ১৬ মেগাপিক্সেলের। পাশাপাশি রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেফথ সেন্সর। ফলে এই ফোনে ছবি হবে ঝকঝকে ও নিখুঁত।

আকর্ষণীয় সেলফির জন্য ফোনটির সামনে রয়েছে ২.০ অ্যাপারচারের পিডিএএফ প্রযুক্তির ১৩ মেগাপিক্সেল পাঞ্চহোল কাট আউট ক্যামেরা। উভয় ক্যামেরায় ফোরকে রেজ্যুলেশনের ভিডিও ধারণ করা যাবে।

ক্যামেরার বিশেষ ফিচারের মধ্যে রয়েছে পিডিএএফসহ অটোফোকাস, এআই মোড, নরমাল মোড, প্রোফেশনাল মোড, ৫পি লেন্স, পোরট্রেইট, এইটএক্স ডিজিটাল জুম, বিএসআই, এইচডিআর, ফেস ডিটেকশন, সেলফ টাইমার, টাচ ফোকাস, টাচ ক্যাপচার, ফিংগারপ্রিন্ট ক্যাপচার, ভলিউম ক্যাপচার, মিরর রিফ্লেকশন, স্লো মোশন, ফাস্ট মোশন, টাইম-ল্যাপস, প্যানোরামা, ফিল্টার, নাইট, বিউটি মোড, কিউআর কোড, ম্যাক্রো লেন্স, বিউটি ভিডিও ইত্যাদি।

 

দুর্দান্ত পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনটিতে রয়েছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংসহ ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার লি-পলিমার ব্যাটারি। এর অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ফেস আনলক, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফুল এইচডি ভিডিও প্লেব্যাক, ফোরকে ইউটিউব স্ক্যালিং, ডার্ক থিম, কুইকচার্জ ৩.০, প্রেয়ার টাইমস, হোম লেআউট, নয়েজ ক্যানসেলেশন, জেসচার নেভিগেশন, থ্রি ইন ওয়ান ডুয়াল ফোরজি সিম সাপোর্ট, ওটিএ, ওটিজি, অটো কল রেকর্ড ইত্যাদি।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নিজস্ব কারখানায় তৈরি এই স্মার্টফোনে ৩০ দিনের বিশেষ রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা রয়েছে। এছাড়া, ১০১ দিনের প্রায়োরিটি সেবাসহ স্মার্টফোনে এক বছরের এবং ব্যাটারি ও চার্জারে ছয় মাসের বিক্রয়োত্তর সেবা মিলবে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.