সাগরে লঘুচাপ, খুলনায় বাড়তে পারে বৃষ্টি

বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। আপাতত খুলনায় বৃষ্টি বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর প্রভাবে এ সপ্তাহের শেষের দিকে সারাদেশে বৃষ্টি বাড়ার পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি।

দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম ও সিলেটে কিছুটা বৃষ্টি ছিল। এছাড়া অন্যান্য বিভাগে খুবই সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি ৪১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামে। ঢাকায় ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক জানান, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে, যা বর্তমানে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

রোববার সকাল থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত ৫ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং তিন বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল।

তবে সোমবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে ওমর ফারুক বলেন, খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় (৫১ থেকে ৭৫ শতাংশ স্থান) এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় (২৬ থেকে ৫০ শতাংশ স্থান) অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়া ও বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে জানিয়ে এ আবহাওয়াবিদ বলেন, আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে।

রোববার দেশের সর্বোচ্চ ও সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দুটিই ছিল মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে। সেখানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.