সাংবাদিক হত্যায় রাম রহিমের যাবজ্জীবন

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
স্ব-ঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিমকে এবার সাংবাদিক রাম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায় হত্যায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরোর (সিবিআই) বিশেষ আদালত। সেইসঙ্গে এ মামলায় আরও তিনজনকে যাবজ্জীবন দেওয়া হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দেশটির হারিয়ানার পঞ্চকুলার সিবিআই আদালত তাকে এ দণ্ড দেন। এর আগে শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) সাংবাদিক রাম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়কে হত্যায় রাম রহিমসহ চারজনকে দোষী সাব্যস্ত করেছিলেন আদালত। তখন বলা হয়েছিল- ১৭ জানুয়ারি এ মামলার রায় দেওয়া হবে। সাজাপ্রাপ্ত আর তিনজন হলেন- কুলদীপ সিং, নির্মল সিং ও কৃষ্ণ লাল। এ তিনজন হারিয়ানার আম্বালা কারাগারে বন্দি।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, সন্ধ্যায় রোহতকের সুনারিয়া কারাগারে থাকা রাম রহিম এবং দোষী সাব্যস্ত আরও তিনজনকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে হাজির করে এ রায় দেন আদালত। সংশ্লিষ্ট সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, রাম রহিমের রায়কে কেন্দ্র করে হারিয়ানার পুঞ্চকুলা এবং সিরসাতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। সেইসঙ্গে আদালত এলাকায়ও নিরাপত্তা স¤প্রসারিত করা হয়।
পুলিশ বলছে, আদালতের বাইরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে। এছাড়া অদালত থেকে আসা-যাওয়ার বিভিন্ন রাস্তা ব্লক করে দেওয়া ঘোষণা আছে। পরিস্থিতি বুঝে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও উলে­ক করেছে পুলিশ।
হারিয়ানা রাজ্য সরকার জানিয়েছে, দেরা সাচা সৌদা ধর্মীয় গোষ্ঠী কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা যাতে সৃষ্টি না করতে পারে, তার জন্য সতর্ক অবস্থানে রয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। ৫১ বছর বয়সী রাম রহিম তার দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণের দায়ে ২০ বছরের কারাদণ্ড পেয়ে বর্তমানে কারাগারে আছেন। ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে তিনি কারাগারে।
২০০২ সালে সিরসার সম্পাদক সাংবাদিক রাম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়কে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছিল রাম রহিমের বিরুদ্ধে। অভিযোগে বলা হয়েছিল, দেরা সাচা সৌদা প্রধান রাম রহিমের নির্দেশেই এ সাংবাদিককে হত্যা করা হয়। পরে ২০০৭ সালে রাম রহিমকে অভিযুক্ত করে এ মামলার চার্জশিট জমা দেয় সিবিআই। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে বহু অপকর্মের অভিযোগ আছে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে। সাংবাদিক রাম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায় রাম রহিমের নানা অপকর্ম তুলে ধরেছিলেন তার পেশাদারিত্ব দিয়ে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.