সাংবাদিক সোহাগ দেওয়ানের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারার মামলার চার্জশিট দাখিল

দ: প্রতিবেদক
গত নভেম্বরে সুন্দরবন দস্যুমুক্ত করার মধ্যস্ততাকারী সাংবাদিক সোহাগ দেওয়ানের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক মোঃ আফাজ আহমেদ খুলনার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন। সাংবাদিক সোহাগ দেওয়ান ঢাকা টাইমসের খুলনা প্রতিনিধি ও স্থানীয় দৈনিক সময়ের খবরের স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।
২০১৭ সালের ১৪ জুন খুলনা সদর থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ও ৬৬ ধারায় মামলাটি দায়ের করে খুলনা সিএমএম আদালতের ভারপ্রাপ্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তা তপন কুমার সাহা। তৎকালীন খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) এম এল বি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ’র আদেশে তিনি মামলাটি দায়ের করেন (নং ২৪)। মঙ্গলবার আদালতে দাখিল করা চার্জশিটে সাংবাদিক সোহাগ দেওয়ান ও সময়ের খবর পত্রিকার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কাজী মোতাহার রহমানকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। ২০১৭ সালে খুলনার সিএমএম আদালতে একটি মামলার রায় ও একই আদালতে কর্মচারী নিয়োগ পরীক্ষা সংক্রান্ত সংবাদের জের ধরে মামলাটি করা হয়।
এবিষয়ে সোহাগ দেওয়ান বলেন, প্রধান বিচারপতির কার্যালয় থেকে ২০১৬ সালের ৩১জুলাই খুলনার তৎকালীন মুখ্যমহানগর হাকিম (সিএমএম) এম,এল,বি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি অনিয়মের একটি অভিযোগ তদন্তের চিঠি খুলনায় আসে। ওই তদন্তের আদেশের চিঠি হাতে পেয়ে আমি একটি রিপোর্ট করি। মূলত সেই থেকে খুলনার তৎকালীন মুখ্যমহানগর হাকিম (সিএমএম) এম,এল,বি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ আমার উপরে ক্ষিপ্ত হন। পরবর্তিতে ওই আদালতে ৭ জন কর্মচারী নিয়োগ বোর্ডের সভাপতি অতিরিক্ত সিএমএম সুমি আহমেদের পদত্যাগের সংবাদ ও একটি অর্থ লেনদেন সংক্রান্ত মামলার রায়ের সংবাদকে ইস্যু বানিয়ে আমার বিরুদ্ধে মামলা করার আদেশ দেন তৎকারীন সিএমএম এম,এল,বি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বর্তমানে গাজীপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.