সরাসরি কৃষকের থেকে ধান কেনা হচ্ছে : মন্ত্রী

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

মধ্যস্বত্বভোগী ও ফড়িয়ারা যাতে কৃষকদের ধানের ন্যায্যমূল্য বঞ্চিত করতে না পারে সেজন্য সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। চলতি বোরো মওসুমে চার লাখ টন ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রার মাত্র ১২ শতাংশ এখন পর্যন্ত পূরণ হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তরে এসব বলেন খাদ্যমন্ত্রী। বিকালে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচির শুরুতে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উপস্থাপিত হয়।

রংপুর-২ আসনের আবুল কালাম মো. আহসানুল হকের প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী সাধন জানান, চলতি বোরো মৌসমে প্রাথমিকভাবে এক লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধান, এক লাখ ৫০ হাজার মেট্রিন টন আতপ চাল এবং ১০ লাখ মেট্রিন টন সিদ্ধ চাল সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নিয়ে গত ২৫ এপ্রিল থেকে তা সংগ্রহ শুরু হয়।

গত ১৬ জুন পর্যন্ত ৪৬ হাজার ২৬৩ মেট্রিক টন ধান (দুই দফায় নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী লক্ষ্যমাত্রার ১১.৫৭%), চার লাখ ২৩ হাজার ৫৩২ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল (লক্ষ্যমাত্রার ৪২.৩৬%), ৩৬ হাজার ৩০৬ মেট্রিক টন আতপ চাল ও ২৩ হাজার ৬১২ মেট্রিক টন গম সংগ্রহ করা হয়েছে।

মন্ত্রী জানান, বাম্পার ফলনের কথা চিন্তা করে পরবর্তীতে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ২ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধান সংগ্রহের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তবে কৃষকদের থেকে সরাসরি চাল সংগ্রহের কোনো পরিকল্পনা নেই। ২৫ এপ্রিল শুরু হয়ে আগামী ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত বোরো মওসুমে ধান-চাল সংগ্রহের কথা রয়েছে।

সংরক্ষিত আসনের আরমা দত্তের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, মধ্যস্বত্বভোগী ও ফড়িয়ারা যাতে কৃষকদের ধানের ন্যায্যমূল্য বঞ্চিত করতে না পারে সেজন্য খাদ্যশস্য নীতিমালা ২০১৭ এর আলোকে কৃষি স¤প্রসারণ বিভাগের প্রণীত ও উপজেলা সংগ্রহ ও মনিটরিং কমিটি অনুমোদিত তালিকা অনুসারে কৃষকদের থেকে ধান সংগ্রহ করা হচ্ছে। ধানের মূল্য ১০ টাকা দিয়ে কৃষকের খোলা ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে সাথে সাথে পরিশোধ করা হচ্ছে।

চট্টগ্রাম-১১ আসনের এম. আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী জানান, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার ‘সবার জন্য খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা বিধানে এগিয়ে যাওয়া’র প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সে মোতাবেক বিজ্ঞাপনে অতিরঞ্জন বন্ধে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ প্রতিনিয়ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকে। এ পর্যন্ত উক্ত আইনে ১৪টি কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

চলতি বছর থেকেই বিদেশে অভিবাসন প্রক্রিয়া অটোমোশনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ।

সংরক্ষিত আসনের সৈয়দা রুবিনা আক্তারের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিদেশে কর্মী পাঠানোর ক্ষেত্রে সামগ্রিক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আরও স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির আনতে ডেটাবেজ হালনাগাদসহ অভিবাসন প্রক্রিয়ার আর্থিক লেনদেন ব্যাংকিং চ্যানেলে সম্পন্নের মাধ্যমে ম্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য বিলাপের জন্য অভিবাসনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সব কার্যক্রম অটোমেশনের আওতায় আনতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এটা এ বছরের মধ্যে বাস্তবায়নের জন্য কাজ চলছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদেশগামী নিরীহ লোকজনকে দালালদের হাত থেকে রক্ষার জন্য বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী আইন ২০১৩ যুগোপযোগী ও রিক্রুটিং এজেন্টস লাইসেন্স আচরণ বিধিমালা সংশোধনসহ আরও কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ-২ আসনের নূর মোহাম্মদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অভিবাসনে পিছিয়ে পড়া জেলাগুলোকে অভিবাসনে উৎসাহিত করতে প্রতি উপজেলা থেকে বছরে গড়ে এক হাজার কর্মী বিদেশে পাঠানোর কর্মপরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের লিয়াকত হোসেনের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানান, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য ঘাটতি ছিল ১৬ হাজার ২৮৪ দশমিক ৮৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *