সরদার হারুনের মৃত্যুবার্ষিকীতে আ’লীগের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

খবর বিজ্ঞপ্তি

রূপসা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম সরদার হারুনার রশিদ এর ১৮ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে গতকাল বাদ মাগরিব দলীয় কার্যালয়ে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ।

এসময় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এ্যাড সুজিত অধিকারী, এ্যাড এম এম মুজিবুর রহমান, বি এম এ সালাম, নূর ইসলাম বন্দ, মকবুল হোসেন মিন্টু, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, তসলিম আহমেদ আশা, অধ্যাপক সরদার ফেরদৌস আহমেদ, বি এম জাফর, রনজিৎ কুমার ঘোষ, অসিত বরণ বিশ্বাস, শেখ মোঃ আবু হানিফ, শফিকুর রহমান পলাশ, মোঃ ইমরান হোসেন।

বক্তগণ মরহুম সরদার হারুন কে নিয়ে স্মৃতিচারণা করে বলেন ‘সরদার হারুন ছিলেন কর্মী বান্ধব ও দল আনুগত্য এক নেতা। তিনি একজন খাঁটি দেশ ও দল প্রেমিক হিসেবে দলমত নির্বিশেষে সকলের গ্রহনযোগ্য ব্যক্তি ছিলেন। তিনি দলের দূরদিনে নিজের সকল কিছুকে বিসর্জন দিয়ে শুধুমাত্র সংগঠন কে শক্তিশালী করার জন্য আপ্রাণ পরিশ্রম করে গেছেন।’

সভা পরিচালনা করেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ। এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাড আইয়ুর আলী শেখ, শ্যামল সিংহ রায়, এ্যাড ফরিদ আহমেদ, মাহাবুবুল আলম বাবলু মোল্লা, আবুল কাসেম মোল্লা, শেখ পীর আলী, মোতালেব হোসেন, আব্দুল হাই পলাাশ, জাহিদুল হক, চ ম মুজিবর, শেখ এশারুল হক, গোপাল চন্দ্র সাহা, সমীর কৃষ্ণ হীরা, সরদার জাকির হোসেন, জামিল খান, মাহাফুজুর রহমান সোহাগ, আসাদুজ্জামান বাবু, রণবীর বাড়ই সজল, শাহীন আলম, আকাশ, বাঁধন রায়, বি এম লিপু প্রমুখ।

স্মরণ সভায় বক্তাগণ রূপসা উপজেলার আঠারো বাকী নদীর উপর নির্মিত ব্রীজটির নাম শহীদ সরদার হারুনুর রশিদ এর নামে নামকরণ করার দাবি করেন। এর আগে সকালে রূপসা নন্দনপূরে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে কবর জিয়ারত ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.