সদর উপজেলার সব কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সদর উপজেলাগুলোয় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। এক্ষেত্রে পুরোটাই এই যন্ত্রে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে কমিশন বৈঠক শেষে গতকাল সোমবার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, উপজেলাগুলোর মধ্যে সদর উপজেলাগুলোয় ইভিএম ব্যবহারের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এক্ষেত্রে সদর উপজেলার পুরোটাই ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হবে। হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ফেব্র“য়ারিতে তফসিল দিয়ে মার্চের প্রথম থেকে পাঁচ ধাপে ভোটগ্রহণ করা হবে।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও ছয়টি আসনের পুরোটাই ইভিএমে ভোটগ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন। যদিও ইভিএমে ভোটের হার ছিল আশানুরুপভাবে কম। সংসদ নির্বাচনে ইভিএমে ৫১ দশমিক ৪১ শতাংশ ভোট পড়েছে। আর ব্যালটে ভোট পড়েছিল ৮০ শতাংশের মতো।
এই প্রথম বিশাল আকারে স্থানীয় নির্বাচনেও ইভিএমে ভোটগ্রহণ করবে নির্বাচন আয়োজনকারী সংস্থাটি।
২০১০ সাল থেকে নির্বাচন কমিশন ইভিএমে ভোটগ্রহণ করছে। ইতোমধ্যে ব্যাপক আকারে যন্ত্রে ভোট করার জন্য বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরির কাছ থেকে ইভিএম তৈরি করে নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। এবার উপজেলা নির্বাচনে দলীয় প্রতীকে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.