শিক্ষকদের অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের চাঁদা বৃদ্ধির আদেশ বাতিলের দাবী

খবর বিজ্ঞপ্তি
গতকাল মঙ্গলবার মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ কমিটির নেতৃবৃন্দ বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের চাঁদার হার বাড়িয়ে ৬ শতাংশের পরিবর্তে ১০ শতাংশ করার আদেশ প্রত্যাহারের দাবী জানিয়েছেন। নাটকীয়ভাবে চাঁদা বৃদ্ধির এ আদেশ প্রত্যাহার করা না হলে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা রাজপথে নামতে বাধ্য হবে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, ২০১৭ সালে শিক্ষক বা শিক্ষক প্রতিনিধিদের সাথে কোনো প্রকার আলোচনা ছাড়াই প্রথমে এক আদেশের মাধ্যমে এই চাঁদা বৃদ্ধি করা হয়েছিলো। সারাদেশের শিক্ষক-কর্মচারীদের আন্দোলনের মুখে সরকার তখন এ আদেশ স্থগিত করেন। পরবর্তীতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কেবলই পূর্বে হঠাৎ করে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে পুনরায় আদেশটি প্রকাশ করা হয়। তখনও শিক্ষক-কর্মচারীদের আপত্তির মুখে শিক্ষা সচিব ওয়েবসাইট থেকে আদেশ প্রত্যাহার করেন। কিন্তু গত ১৪ জানুয়ারী অনেকটা আকস্মিকভাবে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে কারিগরি শিক্ষাবোর্ড পুনরায় চাঁদা বৃদ্ধির আদেশ জারি করেছেন। নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে আরও বলেন, অবসর সুবিধাবোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের চাঁদা বৃদ্ধি নিয়ে বার বার যেটি করা হচ্ছে সেটা শিক্ষক-কর্মচারীদের সাথে লুকোচুরির শামিল। তাঁরা বার বার এ ধরনের আদেশ জারি থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান এবং আদেশটি বার বার স্থগিত না করে বাতিল করার জোর দাবী জানান। বিবৃতিদাতারা হলেন লিয়াজোঁ কমিটির আহবায়ক ড. মোঃ ইদ্রিস আলী, সদস্য সচিব প্রদীপ কুমার সাহা, যুগ্ম আহŸায়ক জসিম উদ্দিন আহমেদ ও অধ্যক্ষ মোঃ নূরুল ইসলাম।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.