February 25, 2024
জাতীয়লেটেস্ট

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিএনপি উসকানির ভাষায় কথা বলছে : ওবায়দুল

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

রোহিঙ্গা নিয়ে বিএনপি উসকানির ভাষায় কথা বলছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে দুই বছর ধরে মিয়ানমার সরকার যে উসকানি দিচ্ছে ও যে ভাষায় কথা বলছে, বিএনপিও সেই উসকানির ভাষায় কথা বলছে।’

গতকাল সোমবার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতির পিতা ব্ঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস (১৫ আগস্ট) উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য ‘সরকার রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে পুরোপুরি ব্যর্থ’ উদ্ধৃত করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মিয়ানমার সরকারের অমানবিক ও নিষ্ঠুর আচরণের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে রোহিঙ্গারা। বাংলাদেশ মানবিক কারণে তাদের আশ্রয় দিয়েছে। এখন উখিয়া-টেকনাফে বাঙালি চার লাখ আর রোহিঙ্গা ১১ লাখ। রোহিঙ্গাদের ফেরাতে বারবার মিয়ানমারকে চাপ দেওয়া হচ্ছে, আলোচনা করা হচ্ছে। তাদের সঙ্গে এ লক্ষ্যে চুক্তিও করা হয়েছে।’ কিন্তু কী বিএনপি করেছে প্রশ্ন রেখে কাদের বলেন, ‘এখন তারা (বিএনপি) নিজেরা রাজনীতিতে সংকটের ফাঁদে পড়ে আবোলতাবোল বকছে। বিভিন্ন ইস্যুতে ধোঁয়া তুলে বিএনপি নেতারা খালেদা জিয়াকে মুক্তির জন্য আন্দোলন করতে না পারার ব্যর্থতা ঢাকার চেষ্টা করছেন।’

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ আগের যেকোনও সময়ের থেকে বেশি দাবি করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে চায় না। রোহিঙ্গাদের ফেরানোর প্রশ্ন আসলেই মিয়ানমার টালবাহানা করতে থাকে। দু’বছর ধরে সীমান্তে বারবার উসকানি দিয়েছে মিয়ানমার। প্রধানমন্ত্রী বারবার সতর্ক করেছেন, এদের ফাঁদে পা দেওয়া যাবে না।’

বিএনপিও একইসুরে কথা বলছে বলে মন্তব্য করেন ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক। তাদের (মিয়ানমার) ভেতরে যা-ই থাক, এখন তারা এদের (রোহিঙ্গাদের) ফিরিয়ে নেওয়ার কথা মুখে বলছে— এটা শেখ হাসিনার সরকারের সফলতা বলে দাবি করেন কাদের।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ইতিহাসের কলঙ্কজনক রক্তাক্ত ঘটনায় নিজেদের মুখোশ উন্মোচিত হওয়ায় বিএনপি বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বিষোদগার-মিথ্যাচার করছে। রাজনীতির পরিশুদ্ধ ভাষা ব্যবহার করতে ভুলে গেছে। ১৫ ও ২১ আগস্টে তাদের সংশ্লিষ্টতা প্রমাণের অপেক্ষা রাখে না। আদালতে এবং জনতার আদালতেও এটা এখন প্রমাণিত। আসলে আগস্ট মাসে এদের মাথা খারাপ হয়ে যায়। বিএনপি এখন অপরাধের শৃঙ্খলে আবদ্ধ হয়ে পড়েছে। ব্যর্থ রাজনীতিকের অসহায়ত্ব ঢাকতে দলটির নেতারা এখন মিথ্যা প্রলাপ বকছেন।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যার উদ্দেশ্যই ছিল প্রতিবিপ্লব গড়ে তুলে পাকিস্তানি ভাবধারায় বাংলাদেশকে নিয়ে যাওয়া। সেই চক্রান্ত এখনও চলছে। আর  এর সঙ্গে জড়িত বিএনপিই।’ কাদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে এগিয়ে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাকে থামিয়ে দেওয়ার জন্য চক্রান্ত চলছে।’

এসময় বাংলাদেশের রাজনীতিতে বিএনপি অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

কৃষিমন্ত্রী  ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *