রূপসায় ভিজিএফ’র চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ, মানববন্ধন

 

 

দ: প্রতিবেদক

খুলনার রূপসা উপজেলার শ্রীফলতলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইসাহাক সরদারের বিরুদ্ধে ঈদ-উল-ফিতরের আগে কার্ডধারী প্রকৃত দুঃস্থ-অসহায়দের মধ্যে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ, ঈদ পরবর্তীতে চাল পরিমানে কম দেয়া এবং নদী চরের খাসজমি দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রবিবার বেলা ১১টায় নগরীর পিসচার প্যালেস মোড়ে ইউনিয়নবাসীর ব্যানারে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। মানববন্ধন শেষে চাল বঞ্চিত দুস্থ-অসহায় শতাধিক নারী-পুরুষ জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি পেশ করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করেন, ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী’র বিশেষ সহায়তা তহবিল থেকে রূপসা উপজেলার শ্রীফলতলা ইউনিয়নে ৪ হাজার ২১টি পরিবারের জন্য ১৫ কেজি হারে চাল বরাদ্দ করা হয়। ঈদের আগেই সম্পূর্ণ চাল বরাদ্দের নির্দেশ থাকলেও নামমাত্র বিতরণ করা হয়। কিন্তু এ চাল আত্মসাতের জন্য বিতরণ করা হয়। এছাড়া ১৫ কেজির স্থলে কমিয়ে ১২ থেকে সাড়ে ১৩ কেজি পর্যন্ত বিতরণ করা হয়। তারপরও ৯শ’ কার্ডের চাল দেওয়া হয়নি। পরবর্তীতে স্থানীয়রা জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করলে তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে ১৩ জুন চেয়ারম্যান চাল বিতরণ শুরু করেন। ওই দিন কার্ডধারীরা চাল আনতে গেলে চেয়ারম্যান ইসাহাক সরদার ও তার ছেলে রনি সরদার তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। ওইদিনও অনেক দুস্থ-অসহায় পরিবার চাল না পেয়ে চোখের পানি ফেলতে ফেলতে ফিরে যান। এছাড়া তার বিরুদ্ধে ইউনিয়ন সংলগ্ন নদীর শত শত বিঘা চরের খাস জমি দখল করে ইটভাটা নির্মানেরও অভিযোগ রয়েছে। এসব বিষয়ে তদন্ত পূর্বক শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে এলাকাবাসীর পক্ষে রবিউল ইসলাম বিশ্বাস, দেলোয়ার হোসেন মোল­া, আইয়ুব মলি­ক বাবু, ফারুক বিশ্বাস, আব্দুল জব্বার শেখ, মুক্তিযোদ্ধা শহীদ জমাদ্দার, শেখ শাহাজাহান আলী, আব্দুস সালাম, শাহ আলম, মো. আব্দুর রাজ্জাক, মো. নাসির প্রমুখ।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.