যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে আনিসুর রহমান নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে তার স্ত্রী শিউলি খাতুনকে (৩৫) যৌতুকের দাবিতে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সোমবার কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত গৃহবধূ শিউলি মারা যায়।
শিউলি উপজেলার দামোদরপুর গ্রামের মৃত সলেমান বিশ্বাসের মেয়ে। শিউলির ভাই শামিম হোসেন জানান, প্রায় ১০ বছর আগে জামাল ইউনিয়নের ডাউটি গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে আনিসুর রহমানের সঙ্গে তার বোন শিউলির বিয়ে হয়। তাদের সংসারে একটি ছেলে ও একটি মেয়ে আছে। তিনি অভিযোগ করেন, বিয়ের পর থেকে ২ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য তার বোন শিউলিকে প্রায়ই আনিস মারপিট করে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দিত। ৬ দিন আগে একই দাবিতে শিউলিকে মারপিট করে গুরুতর আহত করে। এরপর অসুস্থ অবস্থায় ছেলে মেয়েসহ তাদের বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। বৃহস্পতিবার তাকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সে ভর্তি করা হলে সোমবার সে মারা যায়।
কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সের চিকিৎসক সুলতান আহমেদ জানান, নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকালে তিনি মারা যান।
কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইউনুচ আলী জানান, ‘শুনেছি পারিবারিক কারণে স্বামী তাকে মারপিট করে আহত করে। গত ৩ জানুয়ারি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সোমবার (৭ জানুয়ারি) সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। সরেজমিনে তদন্তের পর বিস্তারিত জানাতে পারবো।’

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.