July 19, 2024
আঞ্চলিক

যোগিপোল ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত জনগনের আস্থা অর্জন করেছে

১১৮টি নথিভুক্ত মামলার মধ্যে ১১২টি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে
ফুলবাড়ীগেট প্রতিনিধি: খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার ৬নং যোগিপোল ইউনিয়নের গ্রাম আদালত ইউনিয়নের সাধারণ জনগনের মাঝে ব্যাপোক সাড়া জাগিয়েছে। ইউনিয়নের ছোট খাটো অপরাধ স্থানীয় পর্যায়ে শুনানীর শেষে অল্প সময়ে সমাধান করায় ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে গ্রাম আদালত। বাংলাদেশ সরকার, ইরোপিয়ান ইউনিয়ন এবং এনডিপি এর আর্থিক সহায়তায় ওয়েভ ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় পরিচালিত হচ্ছে বাংলাদেশ গ্রাম আদালত সক্রিয় করণ(২য় পর্যায়) প্রকল্প।
সরকারের গেজেট অনুযায়ী ২০১৭ সালে এপ্রিল মাসে ইউনিয়েনর গ্রাম আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। ইউনিয়নের বাসিন্দাদের লঘু অপরাধ ইউনিয়ের অভ্যন্তরে স্থাপিত গ্রাম আদালতে জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পর্যায়ের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গে এবং উভয় পক্ষের সিলেকশনকৃত প্রতিনিধিদের সমন্নয়ে গঠিত গ্রাম আদালত উভয় পক্ষের শুনানী শেষে অল্প দিনের মধ্যে সমাধান দিয়ে গ্রামের সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করেছে। শুরু থেকে গত ফেব্রয়ারী মাস পর্যন্ত এই গ্রাম আদালতে মোট ১১৮টি মামলা নথিভুক্ত হয়েছে এর মধ্যে ১১২টি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। বাকি ৬টি মামলার বিচারকার্য চলমান রয়েছে। গ্রাম আদালতের রায় অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট ভুক্তভোগীদের ১৫লক্ষ ৬৯ হাজার ৭৫০টাকা প্রদানের সিদ্ধান্ত ও প্রয়োজনিয় ব্যবস্থার মাধ্যমে ভুক্তোভোগীদের আদায় করে ক্ষতিগ্রস্থদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।
এ ব্যাপারে ৬নং যোগিপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আনিছুর রহমান বলেন, সরকারের গ্রেজেট ভুক্ত গ্রাম আদালতের সুফল ইতোমধ্যে জনগণ ভোগ করতে শুরু করেছে। আদালতের উপর থেকে চাপ কমাতে এবং বিভিন্ন জটিলতায় দীর্ঘ সুত্রিতা থেকে সমাজের ছোটখাটো অপরাধ গুলো স্থানীয় গ্রাম আদালতে সমাধান করে দেওয়ায় আদালতের উপর থেকে কিছুটা হলেও মামলার চাপ কমছে। এতে করে ভুক্তভোগী উভয় পক্ষ তাদের কাংখিত বিচার পাওয়ায় এই ইউনিয়নের গ্রাম আদালত এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *