যুক্তরাষ্ট্রে গুলিতে নিহত ৫, সন্দেহভাজন পলাতক

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানায় এক সন্দেহভাজন বন্দুকধারীর গুলিতে পৃথক দুটি স্থানে পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে সন্দেহভাজনের নিজের বাবা-মাও রয়েছেন। শনিবার লুইজিয়ানার রাজধানী ব্যাটন রুজের দক্ষিণে আসেনসিওন ও লিভিংস্টনে ঘটনা দুটি ঘটেছে বলে খবর বিবিসির।
সন্দেভাজন ২৭ বছর বয়সী ডাকোটা থেরিয়ট চুরি করা একটি পিক-আপ ট্রাক নিয়ে পালিয়ে গেছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এক সংবাদ সম্মেলনে আসেনসিওন প্যারিশের শেরিফ ববি ওয়েব্রা বলেছেন, থেরিয়টের কাছে অস্ত্র আছে এবং সে বিপজ্জনক।
স্থানীয় সময় শনিবার সকালে গনজালেজ শহরের একটি ট্রেইলার পার্কে একটি ‘পারিবারিক সহিংসতার’ ঘটনায় পুলিশকে ডেকে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছেন শেরিফ ওয়েব্রা। পুলিশ সেখানে গিয়ে এলিজাবেথ ও কেইথ থেরিয়টকে (উভয়ের বয়স ৫১ বছর) গুলিবিদ্ধ কিন্তু জীবিত অবস্থায় পায়।
তারা পুলিশ কর্মকর্তাদের জানান, তাদের ছেলেই গুলিবর্ষণকারী। স¤প্রতি তাকে বাড়ি ছেড়ে চলে যেতে ও ফিরে না আসতে বলা হয়েছিল বলে জানান তারা। এই দম্পতিকে হাসপাতালে নেওয়ার পর তারা মারা যান। দীর্ঘ সময়ের মধ্যে এটি সম্ভবত আমার দেখা সবচেয়ে শোচনীয় পারিবারিক সহিংসতাগুলোর একটি, বলেছেন শেরিফ।
পুলিশের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই বন্দুকধারী প্রথমে পার্শ্ববর্তী লিভিংস্টন প্যারিশে তিন ব্যক্তিকে হত্যা করে। এরা সন্দেহভাজনের আত্মীয় না হলেও তাকে চিনতেন। নিহতদের বিলি আর্নেস্ট (৪৩), সামার আর্নেস্ট (২০) টানার আর্নেস্ট (১৭) বলে শনাক্ত করা হয়েছে। ডাকোটা থেরিয়টের সঙ্গে সামারের সম্পর্ক ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিলির তিন সন্তানের মধ্যে দুজন সামার ও টানার বলে জানিয়েছেন বিলি আর্নেস্টের বোন ক্রিস্টাল ডেইয়ং।
সন্দেহভাজন বন্দুকধারী এই পরিবারের গাড়িটি চুরি করে নিয়ে প্রতিবেশী অঙ্গরাজ্য মিসিসিপিতে পালিয়ে গেছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। খুনের মতো গুরুতর অপরাধ, অস্ত্রের অবৈধ ব্যবহার ও বাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগে সন্দেহভাজনকে খোঁজা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.