যশোরে ডাকাতের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
যশোরের মণিরামপুর উপজেলায় এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, যাকে ডাকাত বলছে পুলিশ। রামপুর-সাহাপুর জামতলার মাঠে গতকাল বুধবার নজরুল ইসলাম নজুর (৩৮) লাশ পাওয়া যায় বলে মণিরামপুর থানার ওসি সহিদুল ইসলাম জানান। নজরুল কেশবপুর উপজেলার বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের হাড়িয়াঘোপ গ্রামের হোসেন সাপুড়িয়ার ছেলে। এদিকে, সোমবার রাতে পুলিশ পরিচয়ে কয়েকজন লোক নজরুলকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল বলে এক প্রতিবেশী বলেছেন।
মণিরামপুর থানার ওসি সহিদুল ইসলাম বলেন, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে রামপুর-সাহাপুর জামতলার মাঠ থেকে রাজগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ সদস্যরা ওই যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে। বেলা ১২টার দিকে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। দুপুরে নিহতের বাবা ছেলের লাশ শনাক্ত করেন।
ওসি আরও বলেন, রাজগঞ্জের সাহাপুর ও পার্শ্ববর্তী জামতলা এলাকায় প্রায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে, রাতে ডাকাতির সময় দুই দল ডাকাতের মধ্যে গোলাগুলিতে সে নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশি পাইপগান ও একটি ত্রিশুল উদ্ধার করা হয়েছে বলেও ওসি জানান।
কেশবপুর উপজেলার বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আমজেদ হোসেন বলেন, নজু কুখ্যাত ডাকাত ছিল। বছর চারেক আগে সে এলাকা থেকে আত্মগোপন করে। স¤প্রতি তিনি মনিরামপুর উপজেলার বাকোশপোল গ্রামে স্ত্রী ও এক ছেলে নিয়ে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন বলে জানান প্রতিবেশী রাজু।
রাজু বলেন, সোমবার রাত ১২টার দিকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে একদল লোক নজরুলকে ধরে নিয়ে যায়। মঙ্গলবার সকালে নজুর স্ত্রী ছেলেকে নিয়ে ভাড়া বাড়ি ছেড়ে চলে যান।
মণিরামপুর থানার ওসি সহিদুল ইসলাম বলেন, নজুকে কেউ ধরে নিয়ে গিয়েছিল কিনা তা তার জানা নেই। তবে নিহত ব্যক্তির বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.