মেঘনা নদী থেকে ২ মরদেহ উদ্ধার

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
মুন্সীগঞ্জে মেঘনায় নদীতে একটি ট্রলারডুবির ছয় দিনের মাথায় দুটি লাশ পাওয়া গেছে, তবে তারা ওই ট্রলারের কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। গতকাল রোববার সকাল ও দুপুরে এ দুটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে। লাশ পচে-গলে বিকৃত হয়ে গেছে। শনাক্ত করার জন্য স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে।
ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি ইউনিটের উপ-সহাকরী পরিচালক মোস্তফা মহসিন জানান, বেলা ১২টার দিকে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার অদুরে চাঁদপুরের ষাটনল এলাকায় ভাসমান একটি মরদেহ পাওয়া গেছে। এর আগে গজারিয়া লঞ্চঘাটের কাছে সকাল ৯টার দিকে আরেকটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে লাশ দুটি ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ শ্রমিকের কি না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
গত সোমবার গভীর রাতে মুন্সীগঞ্জে মেঘনা নদীতে একটি তেলবাহী ট্যাংকারের ধাক্কায় মাটিবাহী একটি ট্রলার ডুবে যায়। এ সময় ট্রলারটিতে ৩৪ জন শ্রমিক ছিল। ১৪ জন সাঁতারে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও নিখোঁজ হন ২০ জন।
নৌ পুলিশের এমপি হুমায়ূন কবির বলেন, শনিবার রাতে নিখোঁজ শ্রমিকদের স্বজনরা বাড়ি ফিরে যাওয়ায় লাশ শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে; তারা এলে লাশ শনাক্ত করা যেতেও পারে। মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর-গজারিয়া) আশফাকুজ্জামান জানান, পাঁচ দিনের মতো উদ্ধার অভিযান রবিবারও অব্যাহত রয়েছে। চাঁদপুরের ষাটনলের কাছে মেঘনায় নৌবাহিনী, বিআইডব্লিউটিএ, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ‘অত্যাধুনিক প্রযুক্তি’ ব্যবহার করে অনুসন্ধান চালাচ্ছে। ট্রলারটির খোঁজ এখনও মেলেনি।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.