মন্ত্রী হচ্ছেন জুয়েল-মুর্শেদী!

জয়নাল ফরাজী
একাদশ জাতীয় সংসদের মন্ত্রী হতে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল ও সাবেক তারকা ফুটবলার আব্দুস সালাম মুর্শেদী। দু’জনেই এবারের নির্বাচনে খুলনার দুটি আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণের পর তাদের দু’জনের নাম বেশ জোরেসোরে শোনা যাচ্ছে।
এবারের নির্বাচনে খুলনা-২ (সদর-সোনাডাঙ্গা) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল। প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থীর চেয়ে তিনি ৮৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী করেছেন। একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে পরিবহন ও শিপিং ব্যবসায় সেখ সালাহ্উদ্দিনের ব্যাপক অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি ফার্দিন ফিশিং, আজমীর নেভিগেশন ও খুলনা শিপিং লাইন্সের স্বত্বাধিকারী, মধুমতি ব্যাংকের ভাইস-চেয়ারম্যান ও খুলনার নৌপরিবহন মালিক গ্রুপের সাবেক সভাপতি।
তিনি বঙ্গবন্ধুর ছোট ভাই শেখ আবু নাসেরের মেঝো ছেলে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাচাতো ভাই ও বাগেরহাট-২ আসন থেকে নির্বাচিত এমপি শেখ হেলালউদ্দিনের আপন ভাই। মংলা বন্দরসহ নৌ-খাতের নানা উন্নতির বিবেচনায় শেখ পরিবারের সন্তান ও খুলনা থেকে নির্বাচিত শেখ জুয়েলকে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ে স্থান দেওয়া হতে পারে এমন অভিমত এখন সর্বত্র।
এদিকে খুলনা-৪ (রূপসা-তেরখাদা-দিঘলিয়া) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক তারকা ফুটবলার আব্দুস সালাম মুর্শেদী। প্রতিদ্ব›দ্বীর প্রার্থীর চেয়ে তিনি ২ লাখ ৯ হাজার ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন। রাজনীতির ময়দানে নতুন হলেও ব্যবসায়ী হিসেবে বেশ সফল সালাম মুর্শেদী। তিনি একাধারে এনভয় গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বেসরকারি প্রিমিয়ার ব্যাংকের পরিচালক। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশে এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ইএবি) সভাপতি, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউএফটি) পরিচালনা পর্ষদ সদস্য। এর আগে তিনি বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি ও বাংলাদেশ মোহামেডান স্পোটিং ক্লাবের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
ক্রীড়াঙ্গণের উন্নয়নের জন্য ও বাংলাদেশ ফুটবল দলকে পুনরুজ্জীবিত করতে আলোচিত সাবেক ফুটবলার আব্দুস সালাম মুর্শেদীকে ক্রীড়া ও যুব মন্ত্রণালয়ের জন্য বেছে নেয়া হতে পারে বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছেন। তবে খুলনা থেকে কে বা কারা মন্ত্রিসভায় স্থান পাচ্ছেন সেটি এখনো নিশ্চিত নয়। আগামী সোমবার নতুন মন্ত্রিসভার শপথের পূর্বমুহুর্তে এ তথ্য নিশ্চিত হবে বলে সূত্রটি জানায়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.