ভোট বয়কট করলে ফল ভোগ করতে হবে : ওবায়দুল

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
স্থানীয় সরকারের আসন্ন দুটি নির্বাচন বর্জনের যে ঘোষণা বিএনপি দিয়েছে, তা দলটিকে ‘নতুন সংকটে’ ফেলবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গতকাল শুক্রবার গাজীপুরে কোনাবাড়ি ফ্লাইওভারের কাজ পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনে পরাজয়ের পর বিএনপি এখন ‘দিশেহারা’ হয়ে পড়েছে। একটা দল নির্বাচনে অংশ গ্রহণ না করার যে পরিণতি, সেটা তাদেরকে অচিরেই ভোগ করতে হবে। কারণ এতে তারা আরও নতুন নতুন সংকটে পতিত হবে।
দশম জাতীয় সংসদ বর্জন করা বিএনপি গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিলেও তাতে তাদের ভরাডুবি হয়েছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগ এনে বিএনপির নির্বাচিতরা এখনও শপথ নেননি।
এরইমধ্যে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং উপজেলা নির্বাচনে তারা অংশ নেবেন না।
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে সরকারের সেতুমন্ত্রী কাদের সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচন বর্জনের মধ্যে দিয়ে বিএনপি নিজেদের পথ আরও ‘সংকুচিত’ করে ফেলছে। এদেশে মুসলিম লীগও একটা বড় দল ছিল। যা সংকুচিত হয়ে অস্তিত্বটা বিরল প্রজাতির প্রাণীর মতো বিলুপ্ত হতে থাকে।
বিএনপিও মুসলিম লীগের পরিণতি দিকে যাচ্ছে কি না- সেই সংশয় প্রকাশ করে তাদের নির্বাচনে আসার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগ নেতা কাদের। তিনি বলেন, আমি তাদের অনুরোধ করব নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করার জন্য। স্থানীয় সরকার নির্বাচন, সামনে উপজেলা নির্বাচন, ঢাকা উত্তর সিটি উপনির্বাচন আছে… বিএনপিসহ সকল নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে অংশ গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি। তাদের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য অনুরোধ করছি।
সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী কাদের ফ্লাইওভারের কাজের অগ্রগতি নিয়েও সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি বলেন, চন্দ্রা ও কোনাবাড়ি ফ্লাইওভারের কাজ এপ্রিলের মধ্যে শেষ হবে ইনশাল্লাহ। এর মধ্যে কালিয়াকৈরের লতিফপুর ও টাঙ্গাইলের ধেরুয়া রেলওভার ব্রিজের কাজ শেষ হয়েছে।
আমি আশা করছি কোনাবাড়ি, চন্দ্রা ফ্লাইওভার ব্রিজ এবং লতিফপুর ও ধেরুয়া রেলওভার ব্রিজগুলো আগামী রোজার আগে আমরা যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দিত পারব। আগামী রোজার ঈদে জয়দেবপুর থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত যানবাহন চলাচলে কোনো সমস্যা থাকবে না বলে আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী। গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. আজাদ মিয়া, সওজের ঢাকা বিভাগীয় তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, সাসেক প্রকল্পের পরিচালক মো. ইসহাক এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.