ভালোবাসা একটি দিনের নয়-ভালোবাসা চিরন্তন

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস আজ— অন্য দশটা দিনের চেয়ে বিশেষ এ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে আয়োজনের কমতি নেই। একান্ত উদযাপনের পাশাপাশি উৎসবের আমেজও দেখা যায় সবার মধ্যে।

ভালবাসা প্রকাশের এ ধরণ পশ্চিমা দেশগুলোর মতো বাংলাদেশের মানুষকেও ছুঁয়ে গেছে।

বিশ্লেষকদের মতে, পরিচর্যার মধ্য দিয়ে ভালবাসার চর্চা ও ভালবাসার মধ্যে নৈতিক মূল্যবোধ অর্ন্তভুক্ত থাকলেই কেবল ভালবাসার আবেদন থাকবে চিরঅমলিন।

শুনেছি জীবন দামি, তাকে ভালোবেসে যদি অমার্জনীয় অপরাধ হয় হোক, ইতিহাস দেবে অমরতা নিরবধি- কবির কথার মতোই, পৃথিবীতে রয়েছে অমর প্রেমের বহু কাহিনী। আর এমন একটি প্রেমের ইতিহাস ঘিরেই ভ্যালেন্টাইনস ডে’র সূচনা।

তবে ভ্যালেন্টাইনস ডের ইতিহাস সম্পর্কে রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন মত।

কোনো কোনো বিশেষজ্ঞের ধারণা, রোমান সেইন্ট ভ্যালেন্টাইন খ্রিস্টধর্ম ত্যাগ না করায় তাকে নির্মমভাবে হত্যার ঘটনা থেকেই এর উৎপত্তি।

তাদের মতে, ২৬৯ খ্রিস্টাব্দের ১৪ ফেব্রুয়ারি তার আত্মত্যাগের ওই দিনটি ভালোবাসার প্রতীক হিসেবে প্রথম পালিত হয়। ৪৯৬ খ্রিস্টাব্দে পোপ জেলাসিয়াস সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের সম্মানে ১৪ ফেব্রুয়ারি দিনটি নির্ধারণ করেন এবং পরবর্তীকালে তার নামানুসারেই পালিত হতে থাকে এ দিনটি।

আরেকটি মতবাদ হচ্ছে, দিবসটির উদযাপন শুরু হয় রোমান সাম্রাজ্যের সময় থেকে। প্রাচীন রোমে ১৪ ফেব্রুয়ারি দেবদেবীদের রাণী জুনোর সম্মানে উদযাপন করা পবিত্র দিন।

এর পর থেকে বিভিন্ন দেশে নানাভাবে দিবসটি পালিত হচ্ছে। ভালোবাসা প্রকাশের এ ধারা ছুঁয়ে গেছে বাংলাদেশের মানুষকেও। অন্য দশটা দিনের চেয়ে বিশেষ এ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে আয়োজনের কমতি নেই।

আর ভালোবাসা বলতে যে শুধু প্রেমই তা নয়, বরং তা প্রসারিত বন্ধু-বান্ধব, স্বজন সবার মধ্যে। পরিচর্যার মধ্য দিয়ে ভালবাসাকে স্বার্থক করে তুলতে পারলেই সবার জীবন হবে সুন্দর, তাই মনে করেন এই বিশ্লেষক।

ভালোবাসার মানুষদের জন্য ভাল কিছু করা, ভালবাসার মধ্য দিয়ে সমাজ পরিবর্তনে এগিয়ে আসতে তরুণদের প্রতি আহ্বানও রয়েছে তারা।

এদিকে, ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠন নানা আয়োজন করেছে। হোটেল ও রেস্টুরেন্টেও রয়েছে বিশেষ আয়োজন। টেলিভিশন, রেডিওতেও দিবসটি উপলক্ষে প্রচারিত হচ্ছে বিশেষ অনুষ্ঠান।

তবে উদযাপন হোক আর না হোক, ভালোবাসা শুধু একটি দিনের নয়, ভালোবাসা চিরন্তন-বছর বছর দিনটি আমাদের সেকথাই স্মরণ করিয়ে দেয় বার বার।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *