ভারতে সাজা ভোগের পর দেশে ফিরল ২১ বাংলাদেশি

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
অবৈধভাবে ভারতে অনুপ্রবেশকারী ২১ বাংলাদেশি সাজাভোগের পর গতকাল শনিবার বিকালে বিয়ানীবাজারের সুতারকান্দি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে ফিরেছে। বিএসএফ ও আসাম পুলিশ শিলচর ডিটেনশন ক্যাম্প থেকে সোজা তাদেরকে বর্ডারে নিয়ে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করে। এদের বেশিরভাগই বৃহত্তর সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের বাসিন্দা।
এরা হল সুনামগঞ্জের নাসির হুসেন, জকিগঞ্জের সাবেদ আহমদ, বাবলু আহমদ, আব্দুল ওয়াহিদ, সিলেটের খায়রুল ইসলাম, টাঙ্গাইলের আমজান আলী, গোলাপগঞ্জের সফিকুল ইসলাম, সুমন, ফকির, কানাইঘাটের আব্দুস শুকুর। এছাড়া সিলেটের বাইরের ফেরত আসা বাংলাদেশিরা হচ্ছে রমজান আলী, জাহিদা বেগম, সুফিয়া বেগম, মাছুম আহমদ, আশরাফুল আহমেদ চৌধুরী, লিটন আহমেদ, সফিক আহমেদ, রাজু আহমেদ, বিলাল উদ্দিন, শামিম আহমদ ও জুবেল আহমদ।
বিএসএফ, বিজিবি ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভারতের আসাম রাজ্যের করিমগঞ্জ ও ত্রিপুরা রাজ্যের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে এসব বাংলাদেশি ভারতে প্রবেশ করেছিল। এদের বেশির ভাগই কাজের তাগিদে ও বেড়াতে গিয়ে ফেরার পথে পুলিশের হাতে আটক হয়। সাজা ভোগের পর তাদেরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা নেয় ভারত সরকার। ভারতের শিলচর পুলিশের ডিএসপি গৌরব আগরয়াল সাজাভোগী ২১ বাংলাদেশিকে বিয়ানীবাজারের সুতারকান্দি সীমান্তে বিজিবির হাতে হস্তান্তর করেন।
বিয়ানীবাজার থানার ওসি অবনী শংকর কর জানান, ভারত থেকে ফেরত পাঠানো ২১ বাংলাদেশির মধ্যে ১৫ জনকে সুতারকান্দি সীমান্ত থেকে তাদের স্বজনরা নিয়ে গেছেন। অপর ৬ জন পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। তাদের স্বজনদের খবর দেয়া হয়েছে। তারা আসার পর স্বজনদের কাছে তাদেরকে হস্তান্তর করা হবে।
বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়ানের (বিয়ানীবাজার) অধিনায়ক লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল পিএসসি জানান, অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ভারতে সাজাভোগের পর সুতারকান্দি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশিরা দেশে ফিরেছেন। এর আগে বিএসএফ তাদেরকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.