ভারতে নির্বাচনী বহরে হামলায় বিজেপি বিধায়কসহ নিহত ৫

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

ভারতের ছত্তিসগড়ে ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নির্বাচনী প্রচারের গাড়ি বহরে মাওবাদীদের হামলায় অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ছত্তিসগড়ের দন্তেওয়াড়া  এলাকায় এ হামলা হয়। নিহতদের মধ্যে দন্তেওয়াড়ার বিজেপি বিধায়ক ভীমা মাণ্ডভি রয়েছেন। নিহত অপর চারজন নিরাপত্তা কর্মী বলে জানিয়েছে এনডিটিভি অনলাইন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার বিকেলে দন্তেওয়াড়ার কিরণ্ডুল এলাকায় একটি প্রচার কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছিলেন ভীমা মাণ্ডভি। প্রচার সেরে ফিরছিলেন নকুলনার এলাকায়। ফেরার পথে নকুলনার থেকে চার কিলোমিটার আগে শ্যামগিরির কাছে তার বহরে হামলা চালায় মাওবাদীরা। নকুলনারের কাছে বিধায়কের গাড়ি আসতেই তীব্র বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বিধায়কসহ পাঁচ নিরাপত্তা কর্মীর। নিরাপত্তা কর্মীরা ছত্তিসগড় পুলিশে কর্মরত ছিলেন বলে প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে। হামলার পর নিরাপত্তা কর্মীদের সঙ্গে মাওবাদীদের গুলির লড়াই চলে।

পুলিশ জানিয়েছে, মাওবাদী এলাকায় প্রচারে যাওয়ার জন্য সাঁজোয়া গাড়ি (আর্মার্ড  ভেহিকল) দেওয়া হয় নেতাদের। ছোটখাটো আঘাত বা বিস্ফোরণে সেই গাড়িগুলির কোনো ক্ষতি হয় না। কিন্তু বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে সেই গাড়িও কার্যত ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। রাস্তা থেকে ছিটকে পড়ে বিধায়কের গাড়িটি।

বিস্ফোরণস্থলে দেখা গেছে, রাস্তার বেশ কিছুটা অংশ জুড়ে তৈরি হয়েছে বড়সড় গর্ত। তা থেকেই গোয়েন্দাদের অনুমান, আইইডি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। অন্তত ২০ কেজি বিস্ফোরক ব্যবহার করেছে মাওবাদীরা। ছত্তিসগড়ের ডিআইজি (অ্যান্টি নকশাল অপারেশনস) পি সুন্দর রাজ সংবাদ মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন, ‘মাওবাদী হামলায় বিধায়ক ভীমা মাণ্ডভির মৃত্যু হয়েছে।’

বেশ কিছুদিন ধরেই ভোট বয়কটের ডাক দিয়ে ওই এলাকায় পোস্টার ছড়িয়েছিল মাওবাদীরা। একই সঙ্গে হুমকি দেওয়া হয়েছিল, কোনো নেতা প্রচারে এলে তাকে হত্যা করা হবে। কিন্তু সে সব উপেক্ষা করেই প্রচারে গিয়েছিলেন বিজেপি বিধায়ক। কিন্তু যে ভোটের জন্য প্রচারে গিয়েছিলেন, সেই লোকসভা ভোটের আগেই নাশকতার বলি হলেন ভীমা মাণ্ডভি। সূত্র : এনডিটিভি ও আনন্দবাজার।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *