ভারতের বাজারে ঢোকার আগেই ‘চ্যালেঞ্জের মুখে’ টেসলা

ভারতের বাজারে ঢোকার আগেই চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে জনপ্রিয় ইলেক্ট্রিক গাড়িনির্মাতা টেসলা। সামনে আসা প্রতিবন্ধকতাগুলো কাটাতে ভারত সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক। টুইটারে এ তথ্য নিজেই নিশ্চিত করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) টুইটারে টেসলা সিইও’র কাছে এক ব্যক্তি জানতে চেয়েছিলেন, ভারতের বাজারে তাদের গাড়ি কবে মিলবে? জবাবে ইলন মাস্ক বলেন, এখনো (ভারত) সরকারের সঙ্গে অনেক চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করছি।

ইকোনমিক টাইমসের খবর অনুসারে, ইলন মাস্ক ২০১৯ সাল থেকেই ভারতীয় বাজারে টেসলার ‘পরিবেশবান্ধব’ গাড়ি ছাড়ার চেষ্টা করছেন। কিন্তু ভারতে কারখানা স্থাপন ও ১০০ শতাংশ পর্যন্ত আমদানি শুল্ক ইস্যুতে আটকে গেছে আধুনিক বিশ্বের ইতিহাসে শীর্ষধনী এবং মোদী সরকারের মধ্য আলোচনা।

গত মাসে ইলন মাস্ক টুইট করেছিলেন, ভারতে আমদানি শুল্ক বিশ্বের মধ্যে অন্যতম সর্বোচ্চ এবং দেশটি শুদ্ধ জ্বালানির গাড়িকে পেট্রোলচালিতগুলোর নজরেই দেখে, যা তাদের জলবায়ু লক্ষ্যমাত্রার সঙ্গে মোটেও সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।

ভারত সরকার ইলেক্ট্রিক গাড়িনির্মাতাদের স্থানীয় উৎপাদন বাড়াতে ও বিস্তারিত উৎপাদন পরিকল্পনা জানাতে বলেছে। তবে বাজেট-সচেতন ভারতীয় বাজারে তুলনামূলক কম দামে আমদানি করা টেসলা গাড়ি বিক্রির জন্য শুল্ক কমানোর দাবি জানিয়েছেন ইলন মাস্ক।

ভারতের বাজারে টেসলার শুল্কছাড়ের আবেদনে অনেকটা মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। ভক্সওয়াজেন ও হুন্দাই মোটরের ভারতীয় শাখা এটিকে সমর্থন করলেও মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা উল্টো আমদানি শুল্কসহ নিম্নহারের অভ্যন্তরীণ করগুলো পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *