ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে বিএনপি প্রার্থী জয়ী

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে পুনঃভোটে বিএনপির আব্দুস ছাত্তার ভূঞা জয়ী হয়েছেন। আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মৌসুমী বাইন হীরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। গতকাল বুধবার এ আসনে স্থগিত তিন কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ করা হয়। এ আসনে নৌকার কোনো প্রার্থী ছিল না। তবে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মঈন উদ্দিন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন।
মৌসুমী বাইন জানান, এ তিন কেন্দ্রসহ বিএনপি প্রার্থী মোট ১৩২টি কেন্দ্রে পেয়েছেন ৮৩ হাজার ৯৯৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী কলার ছড়া প্রতীক নিয়ে মো. মঈন উদ্দিন পেয়েছেন ৭৫ হাজার ৪১৯ ভোট। এ নিয়ে বিএনপির সংসদ সদস্য সংখ্যা হলো ছয় এবং ঐক্যফ্রন্টের আট।
সংঘাতের কারণে গত ৩০ ডিসেম্বর আশুগঞ্জ উপজেলার বাহারদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, যাত্রাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সোহাগপুর দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। এসব কেন্দ্রে বুধবার পুনঃভোট হয়। আব্দুস সাত্তার ভূঞা এ নিয়ে ৫ম বারের মতো সাংসদ নির্বাচিত হলেন।
তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ১৯৭৯ সালে। এরপর ধানের শীষ নিয়ে প্রথম নির্বাচন করেন ১৯৯১ সালে। ১৯৯৬ সালে টানা দুই মেয়াদে সংসদ সদস্য ছিলেন তিনি।
২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি জোট এ আসনে ইসলামী ঐক্য জোটের তৎকালীন চেয়ারম্যান মুফতি ফজলুল হক আমিনীকে মনোনয়ন দিলে তিনি নির্বাচিত হন। ওই নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চার দলীয় জোট ক্ষমতায় এলে সাত্তার টেকনোক্র্যাট কোটায় ভূমি প্রতিমন্ত্রী হন।
এ আসনে এরপর ২০০৮ সালের নির্বাচনে মুফতি আমিনীকে ফের বিএনপি জোটের প্রার্থী করা হলে তিনি মহাজোটের জিয়াউল হক মৃধার কাছে হেরে যান। আব্দুস সাত্তার ভূঞা ২২ বছর পর এবার আবার ধানের শীষ মার্কা নিয়ে নির্বাচিত হলেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *