বটিয়াঘাটায় পুলিশ সদস্যের শিশু পুত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

দ. প্রতিবেদক
খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলায় ঘর থেকে অভাব মণ্ডল জশ (৫) নামের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার সকাল ৯টার দিকে ওই শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার মৃত ঘোষণা করেন। তবে শিশুটির মৃত্যু রহস্যজনক বলে জানান স্থানীয়রা। মৃত অভাব মণ্ডলের বাবা অমিত মণ্ডল পুলিশের সহকারি উপ-পরিদর্শক হিসেবে কর্মরত রয়েছে। ওই শিশুটির বাড়ি উপজেলার ফুলতলা গ্রামে।
মৃত শিশুর দাদু দেবাশীষ হালদার জানান, গত রবিবার রাত আটটার দিকে অভাব মণ্ডল ও তার মা ঢাকা থেকে গ্রামে আসে। রাতে খাওয়া-দাওয়া করে শিশুটিকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে তার মা। খুবই ভোরে ওই শিশুর মা বাইরে গিয়ে আবার ঘরের ভিতরে এসে দরজা বন্ধ না করে ঘুমিয়ে যায়। সকালে ঘুম থেকে ওঠে দেখে তার পাশে শিশুটি অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। পরে বাড়ির লোকজন এসে শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তিনি অভিযোগ করেন, পরিকল্পিতভাবে চেতনানাশক ঔষুধ ব্যবহার করে জশকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।
বটিয়াঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রবিউল কবির বলেন, শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার গলায় একটি ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। তদন্তের পরে বলা যাবে কিভাবে মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ এম জে এফ

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.