বটিয়াঘাটায় এসআই’র বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে মামলা দেওয়ার অভিযোগ

 

দ: প্রতিবেদক

খুলনার বটিয়াঘাটা থানার এস আই আহম্মেদ কবির মোটা অর্থের বিনিময়ে ব্যবসায়ীকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় খুলনা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন ব্যবসায়ী সিহাব উদ্দিন শেখ।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২৪ মার্চ রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে ডিবি পরিচয়ে বটিয়াঘাটা থানার এসআই আহম্মেদ কবির একটি প্রাইভেটকারে করে প্রতিপক্ষ ওবায়দুল কবির খোকন এর চাচাতো ভাই আতিকুর এর রাইস মিলে নিয়ে যায় এবং চোখ কালো কাপড় দিয়ে বেঁধে রাখে। এসময় এসআই আহম্মেদ কবির উপস্থিত থেকে প্লাস, হাতুড়ি, রড, লাঠিসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তার সঙ্গীরা মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধর করে। পরে অচেতন হয়ে পড়লে রূপসার দারোগার ভিটা ও রূপসা ব্রিজের নিচে নিয়ে এবং ১ লাখ টাকা না দিলে এনকাউন্টার করে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তার কিছুক্ষণ থানায় নিয়ে গিয়ে তাদের চুরি যাওয়া টাকা দিতে বলে, যা সাজানো নাটক।

তিনি আরও বলেন, মামলার বাদীর চাচাতো ভাই আতিকুরের সাথে দীর্ঘদিনের নারীঘটিত সমস্যা চলছিল। এছাড়া নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে বিষয়কে পুঁজি করে তারা দীর্ঘদিন ধরে ফাঁসানোর চেষ্টা করছিল। এক পর্যাযে মিথ্যা নাটকের আড়ালে এসআই আহম্মেদ কবিরকে মোটা অংকের টাকা দিয়ে এই মামলাটি দায়ের করে।

এ ব্যাপারে ইতোমধ্যে ভুক্তভোগীর বড় ভাই ২৭/০৪/১৯ইং তারিখে খুলনা পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছেন। যেখানে উলে­খিত বটিয়াঘাটা থানার মামলা নং ১৩, জি আর কেস নং ৫০/১৯ এজাহার দায়ের করেন।

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.