বছরের প্রথম সংসদ অধিবেশন শুরু

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

শুরু হল একাদশ জাতীয় সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশন, আগামী ১৮ ফেব্রæয়ারি পর্যন্ত চলবে বছরের প্রথম এই অধিবেশন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। শুরুতে স্পিকার সবাইকে স্বাগত এবং খ্রিস্টীয় নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান। একইসঙ্গে ‘মুজিব শতবর্ষের’ শুভেচ্ছা জানান। বছরের প্রথম অধিবেশনে সংবিধানের নিয়ম অনুযায়ী সংসদে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

অধিবেশন শুরুর পর স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী চলতি অধিবেশনের সভাপতিমÐলী মনোনয়ন দেন। স্পিকার বা ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে সভাপতিমÐলীর সদস্যদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন সংসদ পরিচালনা করবেন। সংসদের চলমান অধিবেশনে সভাপতিমÐলীর সদস্যরা হলেন- আলী আশরাফ, শহীদুজ্জমান সরকার, কাজী কেরামত আলী, কাজী ফিরোজ রশীদ ও সৈয়দা জাকিয়া নূর।

এরপর স্পিকার বর্তমান সংসদের সংসদ সদস্য ইউনুস আলী সরকার, সাবেক সংসদ সদস্য ফজিলাতুন নেসা বাপ্পি, পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের সাবেক সদস্য আব্দুল কাদের, সাবেক সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন, এবাদত হোসেন মÐল ও গুলজার আহমদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করেন।

এছাড়া ক‚টনীতিবিদ ও ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক হাই কমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী, ব্রাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদ, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, আল হাইয়াতুল উলিয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল আল্লামা আশরাফ আলী, সাবেক বিচারপতি মাহমুদুল আমীন চৌধুরী, একুশে পদকপ্রাপ্ত অধ্যাপক মুক্তিযোদ্ধা অজয় রায়, কবি ও স্থপতি রবিউল হুসাইন, মুক্তিযোদ্ধা বেনজীর আহমেদ সেলিম, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রগ্রাহক মাহফুজুর রহমান খান, ভাষা সৈনিক রওশন আরা বাচ্চু, সংগীত পরিচালক বাসুদেব ঘোষ, বীরাঙ্গনা আফিয়া খাতুন খঞ্জনি, রাহেলা বেগম, সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্সের মা সুফিয়া খন্দকার, সংসদ সদস্য আখতারুজ্জামানের মা ফাতেমা খানমের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া তেহরানে ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্তে, অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে এবং দেশে-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে শোক প্রকাশ করা হয়। সংসদের রেওয়াজ অনুযায়ী চলমান সংসদের কোন সদস্যের মৃত্যুতে তার জীবন ও কাজের ওপর আলোচনা করা হয়। শোক প্রস্তাব উপস্থাপনের পর সংসদ সদস্যরা ইউনুস আলী সরকারের জীবনের ওপর আলোচনা করেন।

এই আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রাজনীতির পাশাপাশি চিকিৎসা পেশায়ও সক্রিয় ছিলেন ইউনুস আলী সরকার। তিনি মানুষকে বিনা পয়সায় চিকিৎসা ও ওষুধ দিতেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে সাবেক সংসদ সদস্য ফজিলাতুন নেসা বাপ্পি, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা ফজলে হাসান আবেদ প্রমুখের কথা স্মরণ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ফজলে হাসান আবেদ দেশের জন্য যথেষ্ট সম্মান নিয়ে এসেছেন। আমিই তাকে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি এবং ব্যাংক দিয়েছিলাম। তার কাজের ফলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে। অন্যদের মধ্যে বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, সরকারি দলের শেখ ফজলুল করিম সেলিম, তোফায়েল আহমেদ, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া প্রমুখ শোক প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নেন। পরে প্রয়াতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া এবং এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

চলমান সংসদের কোনো সদস্যের মৃত্যু হলে এরপরের সংসদের প্রথম বৈঠকে শোক প্রস্তাব গ্রহণের পর রেওয়াজ অনুযায়ী বৈঠক মুলতবি হয়। এদিকে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সাংবিধানিক নিয়ম। তাই শোক প্রস্তাব গ্রহণের পর অধিবেশন কিছু সময়ের জন্য মুলতবি করেন স্পিকার শিরীন শারমিন। মুলতবির পর ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি।

বছরের প্রথম সংসদ অধিবেশন আগামী ১৮ ফেব্রæয়ারি পর্যন্ত চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংসদের কার্য-উপদেষ্টা কমিটি। অধিবেশন শুরুর আগের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি এই সিদ্ধান্ত নেয়। সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে অংশ নেন। সংসদ সচিবালয় থেকে জানানো হয়, প্রতিদিন বিকাল ৪টা থেকে সংসদ অধিবেশন বসবে। স্পিকার প্রয়োজনে অধিবেশনের সময়সীমা বাড়াতে বা কমাতে পারবেন।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.