বঙ্গোপসাগরের গভীরে অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ইয়াবাসহ ৯ জনকে আটক করেছে র‌্যাব ১৫

বঙ্গোপসাগরের গভীরে অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ইয়াবাসহ ৯ জনকে আটক করেছে র‌্যাব ১৫। তাদের মধ্যে ৮ জন মিয়ানমারের নাগরিক।বৃহস্পতিবার (৪ আগষ্ট) ভোরে সেন্টমার্টিন দ্বীপের দক্ষিণে এ অভিযান চালানো হয়।

আটককৃতরা হলেন, টেকনাফ পৌরসভার দক্ষিণ জালিয়াপাড়ার ওসমান গণির ছেলে জিয়াবুল হোসেন (২১), টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মৃত জাফর আমানের ছেলে আলী উল্লাহ (৫০), জাদিমুড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মৃত ফজল আহমেদের ছেলে আবু তাহের (৪০), মিয়ানমারের আইক্যাপর মেহেরকুলের মো. শফিকের ছেলে মোঃ ইউনুস (৩৫), নূরে আলমের ছেলে বদি আলম (২৩), আমিন হোসেনের ছেলে এনামুল হাছান (২০), হাফেজ আহমদের ছেলে নূর মোহাম্মদ (২২), মাহমুদ হোসেনের ছেলে মোঃ রফিক (২১), সৈয়দ আহমেদের ছেলে মোঃ সাদেক (২২)।

বৃহস্পতিবার (৪ আগষ্ট) বিকালে র‌্যাব-১৫ এর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক লে. কর্ণেল খাইরুল ইসলাম সরকার জানান, র‌্যাব জানতে পারে যে, সমুদ্রপথে অভিনব কায়দায় বড় বড় ইয়াবার চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। গোয়েন্দা সূত্রে র‌্যাব-১৫ এর আভিযানিক দল নিশ্চিত হয় একটি সংঘবদ্ধ চক্র অবৈধ পন্থায় ডাঙ্গায় মোটা অংকের টাকা লেনদেন করবে এবং গভীর বঙ্গোপসাগরে ইয়াবার চালান হস্তান্তর করবে।

তিনি আরও বলেন, এই মৌসুমে প্রতিকূল আবহাওয়ায় উত্তাল সমুদ্রের ভয়াবহতা উপেক্ষা করে র‌্যাবের আভিযানিক দলের সদস্যরা ছদ্মবেশে গভীর সমুদ্রে দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করে এবং এক পর্যায়ে ইয়াবার চালান হস্তান্তর করার সময় হাতেনাতে পুরো চক্রটিকে আটক করতে সক্ষম হয়। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.