ফেনীর নুসরাতের ভাইকে চাকরি দিলেন প্রধানমন্ত্রী

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদ করায় আগুনে পুড়িয়ে মারা ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমানের চাকরি হয়েছে ব্যাংকে। নুসরাতের বাবা-মাকে সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি এই হত্যাকাণ্ডের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী। সব সময় তাদের পরিবারের পাশে থাকারও প্রতিশ্র“তি দেন তিনি।

সোনাগাজীর ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এনেছিলেন। তার মায়ের করা মামলায় সিরাজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই মামলা প্রত্যাহার না করায় ৬ এপ্রিল আলিম পরীক্ষার হল থেকে ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। শরীরের ৮৫ শতাংশ পুড়ে যায় তার।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিঙ্গাপুরে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে তার শারীরিক অবস্থা গুরুতর হওয়া তা সম্ভব হচ্ছিল না। ঢাকা মেডিকেলেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল রাতে মারা যান নুসরাত। তার পরিবারের সদস্যদের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এই সাক্ষাতে এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান নিজাম চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন।

বেসরকারি এই ব্যাংকটিতে ‘ট্রেইনি অ্যাসিস্ট্যান্ট অফিসার’ পদে যোগ দেবেন নোমান, যিনি স্নাতক পরীক্ষার ফল প্রকাশের অপেক্ষায় আছেন। এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের ব্যবাস্থপনা পরিচালক সৈয়দ হাবিব হাসনাতও তাকে নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

 

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.