ফেনীতে ডাকাত সন্দেহে ৩ জনকে পিটিয়ে হত্যা

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

ফেনীতে ডাকাত সন্দেহে তিনজনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে; এছাড়া আরও একজন আহত হয়েছে। জেলার দাগনভুঁঞা থানার ওসি সালেহ আহমেদ পাঠান জানান, শনিবার ভোরের দিকে উপজেলার উত্তর আলীপুর গ্রামের বাগেরহাট এলাকায় হতাহতের এ ঘটনা ঘটে। নিহত তিনজনের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি হলেন ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার জসিম উদ্দিনের ছেলে মো. সোহাগ। অন্যদের নাম-ধাম তাৎক্ষণিকভাবে বলতে পারেনি পুলিশ।

ওসি সালেহ গ্রামবাসীর বরাতে বলেন, শুক্রবার গভীর রাতে দাগনভুঁঞা উপজেলার মাতুভুঁইয়া ইউনিয়নে একাধিক বাড়িতে ডাকাতি হয়। একপর্যায়ে গ্রামবাসী প্রস্তুতি নিয়ে তাদের ঘিরে ফেলে। এ সময় তাদের পিটুনিতে চারজন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্যজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

মাতুভূঁইয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আরাফাত সোহাগ বলেন, ডাকাতরা প্রথমে সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের চরহুজুরি গ্রামের মোল­াবাড়ির তাজউদ্দিনের ঘরে হামলা করে লুটপাট করে। পরে তারা ফেনী নদী পার হয়ে দাগনভূঁঞা উপজেলার উত্তর আলীপুর গ্রামের বাগেরহাটে হেদায়েত উল­ার ঘরে ঢোকে। তারা মালপত্র লুট করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে লোকজন চিৎকার শুরু করে। তখন আশপাশের লোকজন এসে তাদের ধাওয়া করে ধরে ফেলে। তারা তাদের পিটুনি দেয়।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.