ফুলতলা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী শেখ আবিদ

খানজাহান আলী থানা প্রতিনিধি

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে খুলনার ফুলতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নের প্রত্যাশায় নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছে খানজাহান আলী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেন। দির্ঘদিন নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে কাজ করলেও তিনি দলীয় নীতিনির্ধারকদের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় রয়েছে।

সর্বশেষ জাতীয় নির্বাচনে তিনি স্থানীয় খুলনা ৫ আসনের সংসদ সদস্য নারায়ণ চন্দ্র চন্দের এবং বর্তমানে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির গুরুত্বপুর্ণ দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি স্থানিয় নির্বাচনে নিজে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে জোরে সোরে কাজ চলিয়েছেন। নির্বাচনী অগ্রিম প্রস্তুতি হিসাবে তরুণ এই নেতা দলীয় কর্মকান্ডের পাশাপশি বিভিন্ন সামাজিক ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন। নিজের ব্যক্তি পরিচয়ের পাশাপাশি তিনি শহীদ মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ ও স্থানীয় প্রবাবশালী পরিবারের সন্তান। এছাড়া তিনি রাজনৈতিক হত্যাকান্ডের শিকার খুলনা মহানগর যুবলীগের প্রভাবশালী নেতা শেখ মাসুদের বড় ভাই।

ব্যক্তি, সামাজিক এবং রাজনৈতিক দিক বিবেচনা করে সদালাপি তরুণ এই নেতা শেখ আবিদ হোসেনকে তারুণ্যের প্রতিক হিসাবে জনপ্রতিনিধি হিসাবে দলীয় মনোনয়ন দিবেন এমনটাই প্রত্যাশা দলীয় নেতা-কর্মী এবং স্থানীয়দের। তিনি বলেন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার মানসিকতা নিয়ে তিনি আগে থেকে মাঠে কাজ করছে। দলীয় ভাবে তাকে মনোনয়ন দিলে সকালের ইচ্ছার প্রতিফল ঘটাতে পারবেন বলে তিনি আশা ব্যাক্ত করেন।

এদিকে উপজেলার নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি উপজেলার ওলিতেগলিতে প্রচার-প্রচারণায় চষে বেড়াচ্ছে। প্রতিদিন তিনি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, মতবিনিময় সভা করছেন।

উল্লেখ্য শেখ আবিদ হোসেন ২০০৩ সাল থেকে মহানগর উপ-প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন বর্তমানে তিনি খানাজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছে। তিনি শিরোমণির মরহুম শেখ রওশন আলীর পুত্র।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *