প্লেনের খাবারে পাওয়া গেলো সাপের মাথা!

তুরস্কভিত্তিক এয়ারলাইন কোম্পানির একজন ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট সম্প্রতি ফ্লাইটে খাবারের মধ্যে একটি সাপের মাথা খুঁজে পাওয়ার অভিযোগ করেছেন। বিষয়টি নিয়ে হইচই পড়ে গেছে।

এভিয়েশন ব্লগের উদ্ধৃতি দিয়ে দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট জানিয়েছে যে, গত ২১ জুলাই তুরস্কের আঙ্কারা থেকে জার্মানির ডুসেলডর্ফ যাওয়ার একটি সানএক্সপ্রেস ফ্লাইটে চমকপ্রদ এ ঘটনাটি ঘটে।

কেবিন ক্রুর ওই সদস্যের দাবি, তারা তাদের খাবার খাচ্ছিলেন। এসময় আলু এবং সবজির মধ্যে একটি ছোট সাপের মাথা দেখতে পান।

টুইটারে শেয়ার করা একটি ভিডিওতে দেখা যায় যে, সরীসৃপটির মাথা খাবারের ট্রের মাঝখানে পড়ে আছে।

এ ঘটনার পর তুরস্কের সানএক্সপ্রেসের একজন প্রতিনিধি তুর্কি গণমাধ্যমকে বলেছেন যে ঘটনাটি ‘অগ্রহণযোগ্য’। এ ঘটনার পরপরই এয়ারলাইন কর্তৃপক্ষ খাবার সরবরাহকারি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি স্থগিত করেছে। ঘটনাটি তদন্ত করছে বলেও জানিয়েছে তারা।

পরে এক বিবৃতিতে এয়ারলাইন কর্তৃপক্ষ জানায়, বিমান শিল্পে ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে অভিজ্ঞতার সঙ্গে কাজ করছে তারা। তারা বলছে, বিমানে অতিথিদের যে পরিষেবাগুলো প্রদান করা হয় তা সর্বোচ্চ মানের এবং অতিথি ও কর্মচারী উভয়েরই একটি আরামদায়ক ও নিরাপদ ফ্লাইটের অভিজ্ঞতা রয়েছে। বিবৃতিতে ঘটনার জোরালো তদন্তের কথাও জানানো হয়।

এদিকে, প্লেনে খাবার সরবরাহকারী ক্যাটারিং সংস্থা অস্বীকার করেছে যে তাদের কাছ থেকে সাপের মাথা এসেছে।
সানকাক ইনফ্লাইট সার্ভিস বলেছে যে এটি ‘রান্না করার সময় খাবারের মধ্যে অন্য কোনো উপাদান সরবরাহ করেনি। এ ছাড়া ২৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রান্না করা হয়েছে। যেখানে আস্ত সাপের মাথা আসার প্রশ্নই আসে না।

এদিকে, এই সপ্তাহের শুরুতে একই ধরনের আরেকটি ঘটনা ঘটে। একজন ব্যক্তি দিল্লির একটি জনপ্রিয় খাবারের দোকানে খাওয়ার সময় তার সালাদে একটি মৃত টিকটিকি খুঁজে পান বলে অভিযোগ ওঠে

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.