প্লাস্টিকের’ সন্দেহে দেড় বস্তা চাল জব্দ

‘দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

প্লাস্টিক দিয়ে তৈরির সন্দেহে গাইবান্ধায় দেড় বস্তা চাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর মধ্যে ১৫ কেজি চাল পরীক্ষার জন্য ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে পাঠানো হচ্ছে। গতকাল সোমবার বিকালে গাইবান্ধা শহরের নতুন বাজারের চাল ব্যবসায়ী রুবান দেওয়ানের দোকান থেকে এই চাল জব্দ করা হয়।

অভিযোগকারী মুন্সিপাড়ার বাসিন্দা রনি মিয়া জানান, নতুন বাজারের রুবান দেওয়ানের দোকান থেকে তিনি ছয় কেজি চাল কেনেন। এই চাল বাড়িতে নিয়ে ভাত রান্নার পর খেতে অন্যরকম লাগলে তার সন্দেহ হয়। পরে তিনি ওই চাল ভাজতে গিয়ে দেখেন, কড়াইয়ে দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে চাল পুড়ে গলে গেছে। এরপর তিনি চালগুলো নিয়ে সদর থানায় অভিযোগ করেন।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উত্তম কুমার রায় ক বলেন, ‘রনি চালগুলো নিয়ে সদর থানায় অভিযোগ করেন। তার অভিযোগের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত গঠন করে নতুন বাজারের বিভিন্ন চালের দোকানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় রুবান দেওয়ানের দোকান থেকে দেড় বস্তা (৫০ কেজি) চাল জব্দ করা হয়। প্রাথমিকভাবে জব্দ চালগুলো প্লাস্টিকের বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।’

জব্দ চালের মধ্যে ১৫ কেজি চাল পরীক্ষার জন্য ঢাকায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর থেকে প্লাস্টিকের চালের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর ব্যবসায়ী রুবানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিযানের সময় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মো. শাহরিয়ার ও জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাছুম আলী উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.